অনু মালিকের পরিবর্তে হিমেশ

সুরকার, সংগীত পরিচালক ও গায়ক অনু মালিক। যৌন হেনস্তার অভিযোগে সম্প্রতি রিয়েলিটি শো ইন্ডিয়ান আইডলের বিচারকের দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন তিনি। তার পরিবর্তে দায়িত্ব পেয়েছেন গায়ক-সুরকার হিমেশ রেশমিয়া।

এ প্রসঙ্গে হিমেশ বলেন, আমি সুপার ‘সুপারস্টার সিঙ্গার’ অনুষ্ঠানে ছিলাম, এবার ইন্ডিয়ান আইডল ১১-এর মাধ্যমে সেই যাত্রা অব্যাহত থাকবে। ইন্ডিয়ান আইডল শুধু ভারতের সবচেয়ে দীর্ঘ সময় ধরে চলা রিয়েলিটি শো নয়, এটি একটি আইকনিক অনুষ্ঠান। বিচারকের আসনে থাকতে পেরে খুবই আনন্দিত। এখন দায়িত্ব দ্বিগুণ বেড়ে গেল। আমি শুরু থেকেই এই সিজন দেখছি। এবার অনেক ভালো ভালো প্রতিযোগী এসেছেন। আমার বিশ্বাস তারা মিউজিক ইন্ডাস্ট্রিতে ভালো অবস্থান তৈরি করে নিতে পারবে।

গত বছর বলিউডে ‘মি টু’ আন্দোলন বেশ জোরালো হলে অনু মালিকের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার অভিযোগ তোলেন গায়িকা সোনা মহাপাত্র, শ্বেতা পন্ডিত। এছাড়া নাম প্রকাশ না করে আরো দুই নারী এই গায়কের বিরুদ্ধে একই অভিযোগ করেন। সেই সময়ও ‘ইন্ডিয়ান আইডল ১০’-এর বিচারকের দায়িত্ব থেকে বিরতি নিয়েছিলেন অনু মালিক।

চলতি বছর ইন্ডিয়ান আইডল ১১-তে ফের বিচারকের আসনে ফেরেন। এরপর সোনা মহাপাত্র ও নেহা বাসিন এ বিষয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সোচ্চার হন। শেষ পর্যন্ত বিচারকের দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়ান অনু মালিক।

তবে ৫৯ বছর বয়সি এই গায়ক জানিয়েছেন, বিচারকের দায়িত্ব থেকে একবারে সরে যাননি তিনি। বরং, বিরতি নিয়েছেন। এ প্রসঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে অনু মালিক বলেন, আমি শো ছেড়ে যাইনি। তিন সপ্তাহের বিরতি নিয়েছি। আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ মিথ্যা প্রমাণ করে আবার ফিরব।