অবৈধভাবে ভারতে প্রবেশচেষ্টার অভিযোগে আটক ১২

লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার দহগ্রাম সীমান্ত দিয়ে অবৈধভাবে ভারতে প্রবেশচেষ্টার অভিযোগে ছয় কিশোরসহ ১২ জনকে আটক করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)।

এর মধ্যে শুক্রবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় আটক ছয় কিশোরকে সমাজসেবা অধিদপ্তরের মাধ্যমে অভিভাবকের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

আটকরা হলেন ঠাকুরগাঁ জেলার হরিপুর উপজেলার আব্দুল কালামের ছেলে আসাদুজ্জামান (২১), একই উপজেলার মো. সোনারদীর ছেলে মো. বিসু (২০) ও আব্দুল মালেকের ছেলে জাফর হোসেন (২২), লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলার চলবলা গ্রামের কার্তিক বর্মনের ছেলে তুলারাম বর্মন (২৫), তার স্ত্রী অমৃত রায় (১৯) এবং পাটগ্রাম উপজেলার দহগ্রাম ইউনিয়নের মহব্বত আলীর ছেলে শাকিল ইসলাম (২০)। আর আটক ছয় কিশোরের বাড়ি একই উপজেলার হরিপুর উপজেলায়।

পুলিশ ও বিজিবি সূত্রে জানা গেছে, দহগ্রাম-আঙ্গরপোতা সীমান্ত দিয়ে স্থানীয় দালালের মাধ্যমে গত বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাতে অবৈধভাবে ভারতে প্রবেশের চেষ্টা করে। এ সময় ওই ছয় কিশোরসহ ১২ জনকে আটক করেন রংপুর ৫১ বিজিবি ব্যাটালিয়নের পানবাড়ি বিজিবি ক্যাম্পের টহল দলের সদস্যরা। ওই রাতেই তাদের বিরুদ্ধে ভারতে অবৈধ প্রবেশ চেষ্টার অভিযোগ ও পাসপোর্ট আইনে রংপুর ৫১ বিজিবি ব্যাটালিয়নের পানবাড়ি ক্যাম্পের বিজিবি সদস্য বাদী হয়ে পাটগ্রাম থানায় মামলা দায়ের করে আটকদের থানা পুলিশে হস্তান্তর করে বিজিবি। পরে থানা পুলিশ আটক ১২ জনের মধ্যে ছয়জনকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে শুক্রবার লালমনিরহাট কারাগার ও একইদিন সন্ধ্যায় ওই ছয় কিশোরকে স্থানীয় সমাজসেবা অধিদপ্তরের মাধ্যমে অভিভাবকের কাছে হস্তান্তর করে।

পাটগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুমন কুমার মহন্ত বলেন, ‘আটক ১২ জনের মধ্যে ছয়জনকে শুক্রবার জেলহাজতে পাঠানো হয়। আর ছয় কিশোরকে স্থানীয় সমাজসেবা অধিদপ্তরের মাধ্যমে তাদের অভিভাবকদের কাছে হস্তান্তর করা হয়।’