অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেছেন বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট


বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট জিম ইয়ং কিম অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের সঙ্গে বৈঠক করেছেন।

আজ রোববার সকালে সচিবালয়ে বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট ও অর্থমন্ত্রী বৈঠকে বসেন।

সকাল ৯টার দিকে বৈঠক শুরু হয়ে ‌১০টায় শেষ হয় বলে জানান অর্থ মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ তথ্য কর্মকর্তা শাহেদুর রহমান। তিনি আরো জানান, বৈঠক শেষে দুজন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে যান।

গতকাল শনিবার বিকালে ঢাকা পৌঁছান বিশ্ব ব্যাংকের প্রেসিডেন্ট জিম ইয়ং কিম। মূলত রোহিঙ্গাদের পরিস্থিতি সরজমিনে দেখার জন্যই তিনি বাংলাদেশ সফরে এসেছেন।

রোহিঙ্গাদের জন্য ৪৮ কোটি ডলার (তিন হাজার ৯৩৬ কোটি টাকা) অনুদান দেবে বিশ্বব্যাংক। রোহিঙ্গাদের স্বাস্থ্য, শিক্ষা, পানীয়, পয়ঃনিষ্কাশনসহ সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সংস্থাটির অঙ্গসংগঠন আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থা এই অনুদান দিচ্ছে।

এ দিকে গতকাল গভীর রাতে রোহিঙ্গা সংকট সমাধানের উপায় খুঁজতে ঢাকায় এসে পৌঁছেছেন জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস। এর আগে জাতিসংঘ শরণার্থীবিষয়ক সংস্থার প্রধান হিসেবে ২০০৮ সালের ২৭ মে তিনি বাংলাদেশ সফর করেন।

বিশ্ব ব্যাংকের প্রেসিডেন্ট এবং জাতিসংঘের মহাসচিবের আজ বেলা ১১টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠকের কর্মসূচি নির্ধারিত রয়েছে।

আগামীকাল সোমবার বাংলাদেশ বিমানের উড়োজাহাজে কক্সবাজারের রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবিরের উদ্দেশে রওনা দেবেন বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট।

গত বছরের ২৫ আগস্ট মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে অভিযান শুরু করে মিয়ানমারের সামরিক বাহিনী। অভিযানের পর থেকে গণহত্যা, ধর্ষণ, নির্যাতন ও উচ্ছেদের শিকার হয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। এখন পর্যন্ত সাত লক্ষাধিক রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে।

বিভিন্ন সময় জাতিসংঘ বলেছে, রোহিঙ্গাদের ওপর জাতিগত নিধন চালাচ্ছে মিয়ানমারের সেনবাহিনী। যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, কানাডা ও ইউরোপের বিভিন্ন দেশ সেনা কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছে।