আওয়ামী লীগের জনসভা শুরু

1431347_kalerkantho_pic
আজ ১০ জানুয়ারি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস।

দীর্ঘ ৯ মাসের সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে এক সাগর রক্তের বিনিময়ে বিজয় অর্জনের পর ১৯৭২ সালের এই দিনে বাঙালির স্বাধীনতা সংগ্রামের মহানায়ক বঙ্গবন্ধু পাকিস্তানের বন্দিদশা থেকে মুক্তি পেয়ে রক্তস্নাত স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলা-দেশের মাটিতে পা রাখেন।

বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জনসভায় আয়োজন করেছে।

মঙ্গলবার দুপুর আড়াইটার দিকে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে এ সভা শুরু হয়। বেলা ৩ টা ২৫ মিনিটে সমাবেশ স্থলে পৌঁছান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

জনসভা উপলক্ষে দুপুর ১টার পর থেকে রাজধানী ঢাকাসহ পার্শ্ববর্তী জেলা থেকে নেতা-কর্মীরা বিভিন্ন যানবাহনসহ মিছিল সহকারে সমাবেশস্থলে আসতে শুরু করে। নেতা-কর্মীরা ব্যানার, ফেস্টুন, বিভিন্ন বাদ্যযন্ত্র বাজাতে বাজাতে সমাবেশস্থলে আসে। সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের ছয়টি প্রবেশদ্বারের মধ্যে আইইবি ও রমনা গেট বাদ দিয়ে বাকি চার প্রবেশদ্বার দিয়ে সভাস্থলে প্রবেশ করতে হচ্ছে।

জনসভা উপলক্ষে আইনশৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীও সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ঘিরে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়েছে। আর্চওয়ে চেকিংয়ের মাধ্যমে সভাস্থলে প্রবেশ করতে হচ্ছে।

এবার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জনসভা মঞ্চটি করা হয়েছে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনের পাশে। মঞ্চটি স্থাপন করা হয়েছে দক্ষিণমুখী করে। মঞ্চের সামনে প্রয়োজনীয় ফাঁকা স্থান রেখে নেতা-কর্মীদের কয়েক স্তরে বসার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

দিনব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচিতে দিবসটি পালন করছে আওয়ামী লীগ। আজ সকালে দেশের সব দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে কর্মসূচি শুরু করে আওয়ামী লীগ। সকাল ৭টায় ধানমন্ডি-৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করে আওয়ামী লীগসহ সহযোগী সংগঠনের নেতারা।

এদিকে, জনসভাকে কেন্দ্র করে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মিছিল আসায় নগরীতে যানজটও শুরু হয়েছে। যদিও ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) জনসভাকে কেন্দ্র করে নগরীর কয়েকটি সড়ক সাময়িক বন্ধ করে দেয়। কাকরাইল ক্রশিং, মৎস্যভবন ক্রসি, কদমফোয়ারা ক্রসিং, শাহবাগ ক্রসিং এগুলেঅ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।