আকাশই তোমার সীমানা, নেইমারকে রোনালদো

পেরুর বিপক্ষে নিজেকে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছেন নেইমার। ব্রাজিলের কিংবদন্তি স্ট্রাইকার রোনালদো নাজারিওর রেকর্ড ভেঙে হয়ে গেছেন ব্রাজিলের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ গোলদাতা। নেইমারের এমন কীর্তিতে বেশ খুশিই হয়েছেন নিজের রেকর্ড হারানো রোনালদো। সেইসঙ্গে এ প্রজন্মের ব্রাজিল সুপারস্টারকে আরো অনেক দূর এগিয়ে যাওয়ার অনুপ্রেরণা দিয়েছেন তিনি। ভালোবাসা জানিয়ে লিখেছেন, ‘আকাশই তোমার সীমানা, উড়তে থাকো বাচ্চা।’

পেরুর বিপক্ষে ম্যাচটিতে হ্যাটট্রিক করে দলকে জয় উপহার দিয়েছেন নেইমার। হ্যাটট্রিকময় দিনে রেকর্ড গড়েছেন তিনি। ব্রাজিলের জার্সিতে সর্বাধিক গোলদাতা কিংবদন্তি ফুটবলার পেলে। এত দিন তাঁর পরেই স্থান ছিল রোনালদোর। কাল হ্যাটট্রিক করে ২০০২ বিশ্বকাপজয়ী রোনালদোকে ছাড়িয়ে গেছেন নেইমার।

ব্রাজিলের সাবেক স্ট্রাইকার রোনালদো। ছবি : সংগৃহীত
ব্রাজিলের জার্সিতে ১০৩ ম্যাচ খেলে ৬৪টি গোল করেছেন নেইমার। তৃতীয় স্থানে নেমে যাওয়া রোনালদোর গোলসংখ্যা ৯৮ ম্যাচে ৬২টি। অন্যদিকে সর্বাধিক ৭৭টি গোল করে এ তালিকায় শীর্ষে আছেন কিংবদন্তি ফুটবলার পেলে। মাত্র ২৮ বছর বয়সী নেইমার দারুণ ছন্দে আছেন। অচিরেই হয়তো পেলেকেও ছাড়িয়ে যাবেন এ সময়ের অন্যতম সেরা ফরোয়ার্ড।

‘ফেনোমেনন’খ্যাত রোনালদোও নেইমারকে প্রশংসায় ভাসালেন। নিজের ফেসবুক পাতায় লিখেছেন, ‘আমার সব সম্মান তোমার জন্য। অনেক খেল। গোল করাও, ড্রিবল করো, গোল করো। আকাশই তোমার সীমানা। উড়তে থাকো বাচ্চা! কী সুন্দর গল্পই না তুমি লিখছ। পরিপূর্ণ এবং ধীরে ধীরে আরো পরিণত হওয়া ফুটবলার। হলুদ জার্সির ওজন আর মাঠের বাইরের বিষয়গুলো যে কিছু সময় বল পায়ে রাখার চেয়েও চ্যালেঞ্জের—তা আমি জানি। এখন বলো, আমরা কোত্থেকে এসেছি, কোথায় গিয়ে পৌঁছাব, কোনটা অসম্ভব তা আমাদের কে বলবে? নিজের সহজাত ক্ষমতার ওপর আস্থা রাখো। কারণ, কেননা প্রতিভা পুরোপুরি তোমার, এটা কেউ ছিনিয়ে নিতে পারবে না। তোমার সামনে আরো অনেক রেকর্ড এবং সাফল্য অর্জন বাকি রয়েছে।’

অবশ্য সাবেক তারকার জন্য ভালোবাসা প্রকাশ করেছেন নেইমার নিজেও। টুইটারে স্বদেশীয় কিংবদন্তির সঙ্গে একটি ছবি পোস্ট করে লিখেছেন, ‘ফেনোমেনন আমার ভক্তি আপনার জন্য।