আধুনিক প্রযুক্তিনির্ভর মানবসম্পদ তৈরি করতে হবে: আইসিটি প্রতিমন্ত্রী

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, বর্তমান বিশ্বে দ্রুত পরিবর্তনের প্রধান হাতিয়ার হচ্ছে আধুনিক প্রযুক্তি। পরিবর্তিত প্রযুক্তির সাথে নিজেদের খাপ খাওয়াতে না পারলে জাতি হিসেবে আমাদের পিছিয়ে পড়তে হবে। তাই আধুনিক ও পরিবর্তিত বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে এখনই শিল্প, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও সরকার সকলে সম্মিলিতভাবে আধুনিক প্রযুক্তিনির্ভর মানবসম্পদ তৈরির জন্য কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে
বুধবার আগারগাঁওয়ের বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন (ইউজিসি) মিলনায়তনে ইউজিসি ও তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের যৌথ উদ্যোগে বাংলাদেশের আইটি ইঞ্জিনিয়ারদের জাপানসহ বিভিন্ন দেশের আইটি শিল্পের জন্য কর্মসংস্থান উপযোগী করে গড়ে তুলতে কোর্স- কারিকুলাম তৈরী বিষয়ক এক কর্মশালার উদ্বোধনীতে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।
কর্মশালায় বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি, প্রোভিসি, ফ্যাকাল্টি মেম্বার, বিভাগীয় প্রধান, আইটি ও ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষকগণ অংশগ্রহণ করেন।
ইউজিসির চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. কাজী শহীদুল্লাহর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আইসিটি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম, ঢাকাস্থ জাপান দূতাবাসের মন্ত্রী হিরোইকি ইয়ামায়া, জাপান এক্সটার্নাল ট্রেড অর্গানাইজেশনের ঢাকাস্থ প্রতিনিধি ইউজি অ্যানদো বক্তৃতা করেন।
পলক বলেন, আমরা চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের দ্বারপ্রান্তে উপনীত। আগামী দিনের অর্থনৈতিক উন্নয়নের চালিকাশক্তি হবে ফ্রন্টিয়ার টেকনোলজি।
তিনি বলেন, জ্ঞান এবং প্রযুক্তির সমন্বয় ঘটিয়ে আমাদের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিকে এগিয়ে নিতে হবে।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, জাপান বিশ্বের অন্যতম উদ্ভাবনীয় আইটি শিল্পসমৃদ্ধ দেশ । পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের বিপুল সংখ্যক আইটি পেশাদার জাপানে কাজ করছে। প্রতিবছর জাপানে ২ লাখ আইটি পেশাদার জনবল প্রয়োজন হয় । কিন্তু জাপানের জনসংখ্যা বিপুল সংকট রয়েছে। অপরদিকে বাংলাদেশ ডেমোগ্রাফিক ডিভিডেন্ড ভোগ করছে । তাই এই সুবিধাকে কাজে লাগাতে জাপানসহ বিভিন্ন দেশের আইটি শিল্পের চাহিদা অনুযায়ী দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের ইন্টারনেট অফ থিংস, রোবটিক্স, ইমার্জিং ও ফ্রন্টিয়ার টেকনোলজি বিষয়ে পারদর্শী করে তুলতে বিশ্ববিদ্যালয় ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহে কোর্স কারিকুলাম তৈরী করতে সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহ্বান জানান।
তিনি বলেন, এ ব্যাপারে সরকার সর্বাত্তক সহযোগিতা করবে।