আবারও বাড়ল সোনার দাম


বিশ্ব অর্থনীতি নিয়ে আশঙ্কা থেকে এ বছর নিরাপদ বিনিয়োগ হিসেবে আন্তর্জাতিক বাজারে বাড়ছে সোনার চাড়িদা, যা ক্রমাগত বাড়াচ্ছে দাম। এতে দেশের বাজারেও ঊর্ধ্বমুখী সোনার বাজার।

চলতি মাসে দ্বিতীয়বারের মতো স্থানীয় বাজারে সোনার দাম বাড়ার ঘোষণা দিয়েছে বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস)। মঙ্গলবার থেকে দেশে প্রতি ভরিতে দাম এক হাজার ১৬৬ টাকা বেড়েছে। এতে ভালো মানের সোনার দাম ৫০ হাজার টাকা ছাড়িয়ে গেছে।

মূল্যবৃদ্ধি পাওয়ায় গতকাল থেকে প্রতি ভরি (১১ দশমিক ৬৬৪ গ্রাম) ২২ ক্যারেট সোনা ৫০ হাজার ১৫৫ টাকা, ২১ ক্যারেট ৪৭ হাজার ৮২২ টাকা এবং ১৮ ক্যারেট সোনা বিক্রি হচ্ছে ৪২ হাজার ৮০৭ টাকায়। সনাতন পদ্ধতির সোনার ভরি আগের মতোই থাকছে, অর্থাৎ ২৭ হাজার ৫৮৫ টাকা। একইভাবে রুপার ভরি এক হাজার ৫০ টাকা অপরিবর্তিত থাকছে।

সোমবার পর্যন্ত প্রতি ভরি ২২ ক্যারেট সোনা ৪৮ হাজার ৯৮৯ টাকা, ২১ ক্যারেট ৪৬ হাজার ৬৫৬ টাকা এবং ১৮ ক্যারেট ৪১ হাজার ৬৪০ টাকায় বিক্রি হয়।

গত বছর বিশ্ববাজারে সোনার দাম কমলেও বিশ্ব প্রবৃদ্ধি নিয়ে উদ্বেগের কারণে বছর শেষে আবারও ঊর্ধ্বমুখী হয়। তবে এক বছরের হিসাবে দাম কমেছে ১.৪৩ শতাংশ। ২০১৮ সালে রুপার দামও কমেছে ৯.৯৯ শতাংশ। বিশ্লেষকরা বলছেন, বিশ্ব প্রবৃদ্ধি নিয়ে হতাশা বাড়ায় নিরাপদ বিনিয়োগ হিসেবে এ বছর সোনার চাহিদা বাড়বে। ফলে আন্তর্জাতিক বাজারে দাম আরো বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে।