আলুর জন্য উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার্থীর আত্মহত্যা!


গরম গরম আলুভাজা সবার ভীষণ প্রিয়। কিন্তু সেই আলুভাজার জন্যই যে এমন মর্মান্তিক কিছু ঘটে যাবে, তা বোধহয় কেউ দুঃস্বপ্নেও ভাবেনি। আলুভাজার জন্য আত্মঘাতী হল এক উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার্থী। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের দক্ষিণ ২৪ পরগনার ডায়মন্ড হারবারের।

ডায়মন্ড হারবারের মালঞ্জ গ্রামের বাসিন্দা কিশোরী পল্লবী খামারু। নেতড়া হাইস্কুল থেকে এবছরের উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার্থী ছিল সে। এদিন সকালে ঘরের মধ্যে থেকেই পল্লবীর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়।

পল্লবীর পরিবারের সকালের খাবার বলতে ছিল পান্তা আর সঙ্গে গরম গরম আলুভাজা। জানা গেছে, রবিবার সকালে পান্তার সঙ্গে সেই আলুভাজা খাওয়া নিয়ে মায়ের সঙ্গে বচসা হয় পল্লবীর। মেয়েকে বকেন মা। মায়ের বকুনি খেয়ে তারপরই ঘরে গিয়ে দরজা বন্ধ করে দেয় পল্লবী।

পরে ঘর থেকে পল্লবীর গলায় ফাঁস দেওয়া দেহ উদ্ধার করে বাড়ির লোক। পুলিশ দেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পাঠিয়েছে।