ইংলিশদের বিপক্ষে জয় দেখছে যুবারা


সাত নম্বরে নেমে দুর্দান্ত এক ইনিংস খেলে দলকে বড় লিড এনে দিলেন শাহাদাত হোসেন। দিনের শেষ দিকে তিনি এক ওভার হাত ঘুরিয়ে উইকেটও নিলেন একটি। মাঝে ইংলিশদের টপ অর্ডার গুঁড়িয়ে দিলেন অন্য দুই বোলার আসাদুল্লাহ গালিব ও মিজানুর রহমান। ব্যাটে-বলে দুর্দান্ত একটা দিন কাটিয়ে ইংলিশদের বিপক্ষে প্রথম যুব টেস্টে জয়ের সুবাস পাচ্ছে বাংলাদেশ।

চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে প্রথম ইনিংসে ইংল্যান্ড যুব দলের ২৮০ রানের জবাবে বাংলাদেশ ইনিংস ঘোষণা করেছে ৯ উইকেটে ৩৯৮ রানে। শনিবার তৃতীয় দিন শেষে দ্বিতীয় ইনিংসে ইংলিশদের সংগ্রহ ৬ উইকেটে ৮৯ রান। এখনো ২৯ রানে পিছিয়ে আছে সফরকারীরা, হাতে কেবল ৪ উইকেট।

পারভেজ হোসেন ইমন, তৌহিদ হৃদয় ও আকবর আলীর ফিফটিতে আগের দিনই লিড নেওয়ার পথে ছিল বাংলাদেশ যুব দল। দ্বিতীয় দিন শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ছিল ৫ উইকেটে ২৬৬ রান। আকবর ৫৬ ও শাহাদাত শূন্য রান নিয়ে তৃতীয় দিন শুরু করেন।

এ জুটিতেই লিড পায় বাংলাদেশ, সংগ্রহও তিনশ ছাড়িয়ে যায়। আকবরের বিদায়ে ভাঙে ৫১ রানের জুটি। ৯৭ বলে ১১ চার ও এক ছক্কায় ৮২ রান করেন এই উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান।

এরপর শাহাদাতের ব্যাটে ছুটেছে বাংলাদেশের রানের চাকা। মাঝে তাকে সঙ্গ দেওয়া রকিবুল হাসান ১৪ ও মিজানুর ফেরেন ৫ রান করে। শাহাদাত এগোছিলেন সেঞ্চুরির দিকেই। কিন্তু সেঞ্চুরি থেকে ১৬ রান দূরে থাকতে নবম ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হয়ে যান তিনি। এরপরই ইনিংস ঘোষণা করে স্বাগতিকরা।

১১৪ বলে ১২ চারের সাহায্যে ৮৪ রানের ইনিংসটি সাজান শাহাদাত। আগের দিন পারভেজ ৬২, হৃদয় ৬১ ও অমিত হাসান করেন ৪৯ রান। প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশ পায় ১১৮ রানের বড় লিড।

প্রথম ইনিংসে ইংলিশদের উদ্বোধনী জুটি স্থায়ী হয়েছিল প্রায় ৪৩ ওভার, রান উঠেছিল ১২৪। এবার ২০ রানেই ভাঙে তাদের উদ্বোধনী জুটি। জর্জ বল্ডারসনকে (১০) উইকেটকিপারের ক্যাচ বানিয়ে বাংলাদেশকে প্রথম সাফল্য এনে দেন মিজানুর।

আরেক ওপেনার বেন চার্লসওয়ার্থকে (২০) ইনিংস বড় করতে দেননি গালিব। এরপরই ধসে পড়ে ইংলিশদের ব্যাটিং অর্ডার। ১ উইকেটে ৫১ থেকে দ্রতই স্কোর হয়ে যায় ৫ উইকেটে ৭৩! গালিব তুলে নেন লুইস গোল্ডসওয়ার্থি (১৭) ও জেমি স্মিথের (০) উইকেট। মিজানুরের শিকার টম ল্যামনবাই (১২)।