ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ৩ রাউন্ডের সূচি চূড়ান্ত

চূড়ান্ত হয়েছে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের তিন রাউন্ডের সূচি। এভারটনের বিপক্ষে ম্যাচের মাধ্যমে আবারও মাঠে নামবে টেবিল টপার লিভারপুল। শেষ পর্যন্ত মৌসুমের সবগুলো ম্যাচ আয়োজন করা না গেলে, বাদ দেয়া হতে পারে রেলিগেশনের নিয়ম। এদিকে, আর্থিক সংকট মোকাবিলায় ব্যাংক থেকে ১৭৫ মিলিয়ন পাউন্ড লোন নিয়েছে টটেনহ্যাম।

১৭ জুন আবারও ফিরছে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ। এ খবর এখন পুরনো। নতুন খবর হলো, একাধিক রাউন্ডের সূচিও তৈরি করে ফেলেছে লিগ কর্তৃপক্ষ। নগর প্রতিদ্বন্দ্বী এভারটনের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে আবারো শিরোপা জয়ের যাত্রা শুরু করবে লিভারপুল। টেবিলের দুইয়ে থাকা ম্যানচেস্টার সিটি, আর্সেনালের কাছে হারলে এভারটনের বিপক্ষে ম্যাচ শেষেই নিশ্চিত হবে অলরেডদের শিরোপাজয়। যদিও এ ম্যাচের ভেন্যু এখনো চূড়ান্ত হয়নি। এছাড়া, ২৪ জুন ক্রিস্টাল প্যালেস ও দোসরা জুলাই ম্যানসিটির বিপক্ষে খেলবে ইয়ুর্গেন ক্লপের দল।

১৭ জুন আর্সেনালের পর ২২ জুন বার্নলির মুখোমুখি হবে সিটিজেনরা। লেস্টার সিটি-ওয়াটফোর্ডের ম্যাচ ২০ জুন। ১৯ জুন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের বিপক্ষে বিগ ম্যাচে নামবে মরিনিয়োর টটেনহ্যাম।

মাঠে ফেরার উচ্ছ্বাস আছে। তবে, আর্থিক দিক বিবেচনায় ভালো নেই স্পাররা। ব্যাংক অব ইংল্যান্ড থেকে মোটা অঙ্কের লোন নিয়েছে তারা। ২০২০-২১ মৌসুমে ২০০ মিলিয়ন রাজস্ব হারানোর শঙ্কায় আছে ক্লাবটি। তাই এবার ব্যাংকের শরণাপন্ন হতে হয়েছে তাদের। তবে, এ অর্থ নতুন ফুটবলার কিনতে ব্যয় করবেনা লন্ডনের ক্লাবটি।

এদিকে, অন্য সব দল যখন খেলা ফেরায় উচ্ছ্বসিত, তখন তা না শুরু হলেই হয়তো খুশি হতো নরউইচ সিটি, অ্যাস্টন ভিলা ও বোর্নমাউথ। মৌসুম শেষ না হলে এবার অবমাননা না রাখা হতে পারে বলে জানিয়েছেন ফুটবলার্স অ্যাসোসিয়েশনের প্রধান। তাই খেলা ফিরলেই বরং বিপাকে পড়বে টেবিলের তলানিতে থাকা তিন ক্লাব।