ইমরানকে দেওয়া বিলাসবহুল প্লেন ফিরিয়ে নেন সৌদি প্রিন্স!


জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের সভায় পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের দেওয়া বক্তব্যের প্রেক্ষিতে ক্ষিপ্ত হয়েছেন সৌদি ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান। এ কারণে নিউ ইয়র্ক থেকে ইসলামাবাদ ফেরার জন্য ইমরানকে প্রিন্স সালমান যে বিলাসবহুল ব্যক্তিগত বিমান দিয়েছিলেন তা ফিরিয়ে নেন। এই চাঞ্চল্যকর দাবি করেছে পাকিস্তানের একটি সাপ্তাহিক পত্রিকা।

গত ৪ অক্টোবর পাকিস্তানের ম্যাগাজিন ফ্রাইডে টাইমস-এর প্রতিবেদনে বলা হয়, সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানকে ক্ষিপ্ত করে নিউ ইয়র্কে বিপাকে পড়ে যান পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। এর ফলে ইমরানকে দেওয়া বিলাসবহুল প্লেনটি ফেরত নিয়ে নেন সৌদি যুবরাজ।

গত মাসে জাতিসংঘের সভায় যোগ দিতে যাওয়ার আগে দু’দিনের সৌদি সফরে ছিলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। সেখান থেকেই তাঁর নিউ ইয়র্কে যাওয়ার কথা ছিল। ইমরানের জন্য তৈরি ছিল সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের একটি বিমান। যুবরাজ সালমান ইমরান খানকে তাঁর বিশেষ বিলাসবহুল বিমান ব্যবহার করতে দেন। তবে ইসলামাবাদ থেকে ফেরার সময়েই বিপত্তি ঘটে। নিউ ইয়র্ক থেকে আকাশে বিমান ওড়ার পর প্লেনটিতে যান্ত্রিক ত্রুটি দেখা যায়। ফিরিয়ে আনা হয় প্লেনটি।

এদিকে, পাকিস্তানের ওই সংবাদমাধ্যমটি দাবি করছে, প্লেনটিতে কোনও যান্ত্রিক ত্রুটি ছিল না। সৌদি যুবরাজ ওই প্লেন থেকে পাকিস্তানি প্রতিনিধিদলকে নামিয়ে আনতে বলেন।

একটি সূত্র বলছে, ইসলামি দেশের প্রতিনিধিরা ইমরান খানের ওপরে ক্ষুব্ধ। এই প্রেক্ষিতে ওই সিদ্ধান্ত নেন সৌদি যুবরাজ। পাশাপাশি ইরানের সঙ্গে পাকিস্তানের যোগাযোগকেও ভালো চোখে দেখছে না সৌদি আরব।

তবে, পাকিস্তান সরকারের এক মুখপাত্র ওই খবরকে ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিয়েছেন।