এবার পর্নো তারকার চরিত্রে রাম্যা, এক দৃশ্যে ৩৭ টেক!


ভারতের দক্ষিণী চলচ্চিত্র ‘সুপার ডিলাক্স’ বহুল প্রতীক্ষার। কিছুদিন আগে পরিচালক থিয়াগারাজান কুমারারাজা এই ছবির ট্রেইলার মুক্তি দিয়েছেন। সামাজিক মাধ্যমে এরই মধ্যে সেটি ঝড় তুলেছে। চরিত্রের জটিলতা আর সেটআপের কারণে সুপার ডিলাক্সের ট্রেইলার সিনেপাড়ায় সাড়া ফেলেছে।

এর আগে খবর বেরিয়েছিল, ‘বাহুবলি’ খ্যাত অভিনেত্রী রাম্যা কৃষ্ণন এই ছবিতে পর্নো তারকার ভূমিকায় অভিনয় করবেন। নির্মাতা বলেছিলেন, ছবির ভেতর আরেকটি ছোট ছবি লুকিয়ে রয়েছে। ‘সুপার ডিলাক্স’-এর ‘মাল্লু আনকাট’-এ ওই ভূমিকায় দেখা যাবে রাম্যাকে। সেই খবরের পর থেকে সিনেমায় রাম্যা কৃষ্ণনের পারফরম্যান্স দেখার জন্য মুখিয়ে আছেন সিনেপ্রেমীরা।

সম্প্রতি একটি শীর্ষ ইংরেজি দৈনিককে দেওয়া সাক্ষাৎকারে নিজের চরিত্রকে ‘ক্যারিয়ারের সবচেয়ে চ্যালেঞ্জিং’ বলে অভিহিত করেছেন রাম্যা কৃষ্ণন। তিনি বলেন, ‘এতে (সুপার ডিলাক্স) অভিনেতার চেয়েও কনটেন্টকে (আধেয়) গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে বেশি।’ আর তার কৃতিত্ব পরিচালক থিয়াগারাজানকে দিচ্ছেন এই অভিনেত্রী।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রাম্যা কৃষ্ণনের একটি দৃশ্যের জন্য ৩৭ বার টেক নিয়েছেন পরিচালক থিয়াগারাজান কুমারারাজা। সময় নিয়েছেন পুরো দুদিন।

‘আমার ক্যারিয়ারে খুব চ্যালেঞ্জিং চরিত্র এটি। আমি কিছু চরিত্র করি টাকার জন্য, কিছু জনপ্রিয়তা ও নামের জন্য, আবার কিছু শখের বশে বা নেশায়। এটি (সুপার ডিলাক্স) প্যাশন থেকে করেছি। একটা দৃশ্যের জন্য ৩৭ বার টেক দিয়েছিলাম। আমি তো বটেই, আমার সহকারীরাও শকড হয়েছিল,’ বলেন রাম্যা।

একটি ভিডিও সাক্ষাৎকারে নির্মাতা থিয়াগারাজান ও মিসকিন জানান, অনেক দৃশ্যের জন্যই এক থেকে দেড়শবার টেক নিতে হয়েছে।

রাম্যা কৃষ্ণনের ভূমিকা প্রসঙ্গে থিয়াগারাজান বলেন, ছবির ভেতর ছবি ‘মাল্লু আনকাট’-এ তিনি পর্নো তারকার চরিত্রে অভিনয় করবেন। ‘আমরা আসলে এই চরিত্রের জন্য নাদিয়াকে চেয়েছিলাম, রাম্যা খুব শান্ত, সম্ভবত তিনি ব্যাপারটা বুঝতে পেরেছেন এবং নিজেকে সেই কমফোর্ট জোনে নিয়ে গেছেন,’ বলেন থিয়াগারাজান।

‘সুপার ডিলাক্স’-এ অন্যদের মধ্যে রয়েছেন বিজয় সেতুপতি, ফাহাদ ফাসিল ও মিসকিন। চলতি মাসের ২৯ তারিখ ছবিটি মুক্তি পাবে।