ঐক্যফ্রন্ট নির্বাচন পেছানোর বাহানা করছেন : ওবায়দুল কাদের


আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, সংলাপে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট যে দাবি করেছে, তা মূলত নির্বাচন পেছানোর বাহানা।

সংলাপে ঐক্যফ্রন্টের নেতৃত্ব দেন ড. কামাল হোসেন। দ্বিতীয় দফার এ সংলাপ চলে দুপুর ২টা পর্যন্ত চলে।

আজ বুধবার দুপুরে সংলাপ শেষে গণভবনে ব্রিফিংয়ে সেতুমন্ত্রী একথা বলেন।

গণমাধ্যমকে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘সংবিধান অনুসারে যখন নির্বাচন হওয়ার কথা, ঐক্যফ্রন্টের নেতারা সেটির পরিবর্তে সংসদ ভেঙে দিয়ে পরবর্তী ৯০ দিনের মধ্যে নির্বাচনের দাবি করেছেন। এর মাধ্যমে তারা নির্বাচন পেছানোর বাহানা করছেন।’

ওবায়দুল কাদের অবশ্য জানান, ‘আলোচনা ফলপ্রসূ হয়েছে। তাদের অনেক দাবি আমাদের মেনে নিতে কোনো আপত্তি নেই। প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা তাদের আশ্বস্ত করেছেন— অবাধ, সুষ্ঠু, অংশগ্রহণ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচনে যা করণীয়, সবই করা হবে। মন্ত্রীরা নির্বাচনের প্রচারণায় কোনো ধরনের সুযোগ-সুবিধা নেবেন না।’

এর আগে গণভবনে বেলা ১১টায় প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার সঙ্গে সংলাপে বসেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের ১১ নেতা।