ওয়াইড বলে রিভিউ চান কোহলি

ক্রিকেটে প্রায়ই ওয়াইড ও নো বল নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়। একদিন আগেও এই বিতর্কে জড়িয়েছেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। তাই ব্যাপারটির সুরাহার জন্য ওয়াইড ও নো বলের জন্য রিভিউ চাইছেন ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি।

একটি ক্রীড়াসামগ্রী প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানের আয়োজনে গতকাল বুধবার আরেক ভারতীয় ক্রিকেটার লোকেশ রাহুলের সঙ্গে ইনস্টাগ্রাম লাইভে ওয়াইড ও নো বল নিয়ে মতামত তুলে ধরেন কোহলি।

কোহলি বলেন, ‘অধিনায়ক হিসেবে এখানে নিজের মতামত তুলে ধরব আমি। অধিনায়ক হিসেবে চাইব, যদি আমার কাছে তা মনে হয় ভুল সিদ্ধান্ত, তাহলে যেন ওয়াইড বল নিয়ে রিভিউর অধিকার আমার থাকে। অথবা কোমর উচ্চতার নো বল নিয়েও আমি রিভিউ নিতে চাইব, যদি সেটি মনে হয় ভুল সিদ্ধান্ত।’

কোহলি আরো বলেন, ‘যুগ যুগ ধরে আমরা দেখেছি, এ ধরনের বিষয়গুলো কত বড় আকার ধারণ করতে পারে। একটা ম্যাচে ছোট্ট একটা ভুল হতেই পারে (আম্পায়ারদের), পরে সেটিই বড় ব্যাপার হয়ে দাঁড়ায়। কোনো দল যদি ১ রানে হেরে যায়, অথচ দেখা গেল প্রাপ্য একটি ওয়াইড তারা পায়নি এবং রিভিউ করতে পারেনি, তাহলে ওই টুর্নামেন্টে তাদের সম্ভাবনায় সেটি বড় ধাক্কা হতে পারে।’

কোহলির সঙ্গে সহমত রাহুলও। তিনি বলেন, ‘নিয়মটি করা হলে খুব ভালো হয়। দুটি রিভিউ থাকল তাহলে দলগুলো যেভাবে ইচ্ছা সেগুলো কাজে লাগাতে পারে।’

একদিন আগে ওয়াইড বিতর্কে নাম জড়িয়েছে চেন্নাই সুপার কিংস অধিনায়ক ধোনির। দুবাই আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে গত মঙ্গলবার চেন্নাই সুপার কিংস বনাম সানরাইজার্স হায়দরাবাদের মধ্যকার ম্যাচে ঘটনাটি ঘটে।

চেন্নাইয়ের বিপক্ষে ম্যাচে শেষ দুই ওভারে জয়ের জন্য হায়দরাবাদের প্রয়োজন ছিল ২৭ রান। ওই সময়ে ১৯তম ওভারে বোলিংয়ে আসেন শার্দুল ঠাকুর। প্রথম বলে দুই রান নেন রশিদ খান। দ্বিতীয় বল অনেকটা অফস্টাম্পের বাইরে, স্বাভাবিকভাবে ওয়াইড দেন আম্পায়ার। তার পরের বলও অনেকটা বাইরে করেন শার্দুল। স্পষ্ট দেখা যাচ্ছে ওয়াইড লাইনের বাইরে পড়েছে বল। ওয়াইডের ইশারা দিতে যান আম্পায়ার। ওয়াইড দেওয়ার জন্য কিছুটা হাত তুলেওছিলেন আম্পায়ার পল রাফায়েল।

এর আগেই আম্পায়ারের দিকে কড়া চোখে তাকান ধোনি, যা দেখে হাত আর প্রসারিত করেননি আম্পায়ার। বিষয়টি দেখে অবাক হয়েছেন হায়দরাবাদ অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নার।