করোনার পরিস্থিতি বিবেচনা করে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার সিদ্ধান্ত: শিক্ষামন্ত্রী

করোনাভাইরাস সংক্রমণ আবার বাড়তে থাকায় পরিস্থিতি বিবেচনায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি। গতকাল শুক্রবার রাজধানীর আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এ কথা জানান।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘এখন পর্যন্ত মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো ৩০ মার্চ খোলার কথা। আর বিশ্ববিদ্যালয় খোলার কথা ২৪ মে এবং হলগুলো খোলার কথা রয়েছে ১৭ মে থেকে। গত এক বছরে যে পর্যবেক্ষণ করেছি, আমাদের শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মচারী, অভিভাবকসহ সবার স্বাস্থ্য ঝুঁকি, সার্বিক নিরাপত্তার বিষয়টি বিবেচনায় নিয়েই আমরা সিদ্ধান্ত নেব। কাজেই আমরা পর্যবেক্ষণ করছি।’

এদিকে গতকাল সন্ধ্যায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবুল খায়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানান, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছুটি বাড়ানো হবে এমন কথা বলেননি শিক্ষামন্ত্রী। তিনি বলেছেন পরিস্থিতি বিবেচনায় সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, “শিক্ষামন্ত্রী আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে কথা বলেছেন। সেখানে তিনি ‘শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি আরো বাড়বে’ এ মন্তব্য করেননি। এ বিষয়ে ভালোভাবে শুনে নিউজ করার জন্য অনুরোধ করা হলো।”

এর আগে গত ২৭ ফেব্রুয়ারি শিক্ষামন্ত্রী আন্ত মন্ত্রণালয় বৈঠকে জানিয়েছেন, আগামী ৩০ মার্চ দেশের সব স্কুল-কলেজ খুলে দেওয়া হবে। প্রায় এক বছর বন্ধ থাকার পর ৩০ মার্চ দেশের সব স্কুল-কলেজ খুলে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছিল সরকার। তখন করোনা শনাক্তের হার ছিল ৩.৩০ শতাংশ। পরে তা আরো কমে ২.৮৭ শতাংশ হয়। তবে এরপর থেকে তা বাড়তে থাকে।