করোনা সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানে হামলা করে মুক্তিপণ চাইছে হ্যাকাররা

করোনা চিকিৎসার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট একটি প্রতিষ্ঠানে সাইবার হামলা করে বিটকয়েনে মুক্তিপণ দাবি করেছে হ্যাকাররা। তারা ক্রিপ্টোকারেন্সি বা ভার্চ্যুয়াল মুদ্রা বিটকয়েনে ৮ লাখ পাউন্ড মুক্তিপণ দাবি করে। অর্থ না পেয়ে ওয়েবের কালোবাজারে তথ্য ফাঁস করে দিয়েছে বলেও জানা যায়।

করোনার এই সংকটে সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোকে সুরক্ষা সরঞ্জাম সরবরাহ করে আসছে কেন্ট কমার্শিয়াল সার্ভিসেস (কেসিএস)। যুক্তরাজ্যভিত্তিক প্রতিষ্ঠানটির মালিক কেন্ট কাউন্টি কাউন্সিল। কেসিএস তাদের গ্রাহকদের আশ্বস্ত করেছে, কর প্রদানকারী কোন গ্রাহকের ব্যক্তিগত ডেটা চুরি হয়নি। হ্যাকারদের কোন মুক্তিপণও পরিশোধ করা হয়নি। এর পাশাপাশি প্রতিষ্ঠানটিকে ডেটা সুরক্ষা পরামর্শও দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে তথ্য কমিশন।

কেসিএস এর প্রধান নির্বাহী জন বার বলেন, ‘বিশেষ ম্যালেসাস দিয়ে তারা হামলা করেছে।’ একটি ফিশিং ইমেইল দিয়ে প্রতিষ্ঠানটির নেটওয়ার্কে হ্যাকাররা ঢুকে পড়ে এবং ব্যবসা ও করপোরেট ডেটা চুরি করে বলে জানা যায়। এর ফলে ডেটা সুরক্ষা করে নেটওয়ার্ক আবার স্বাভাবিক করতে প্রতিষ্ঠানটির চার সপ্তাহ সময় লেগেছে। আরো দুই সপ্তাহ সময় লাগবে এর সুরক্ষা পুরোপুরি নিশ্চিত করতে। ২ এপ্রিল সাইবার হামলাটি হয়।