কুমিল্লায় শিশুকন্যার গলায় ছুরি ঠেকিয়ে মাকে ধর্ষণ

কুমিল্লার তিতাসে আড়াই বছরের শিশুকন্যাকে ছুরি দিয়ে হত্যার ভয় দেখিয়ে মাকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ১৮ অক্টোবর উপজেলার সাতানী ইউনিয়নের ২য় গোবিন্দপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় ১৯ অক্টোবর ধর্ষণের অভিযোগে মামলা দায়ের করেন ধর্ষিতার বোন। পরে আদালতের অভিযোগের প্রেক্ষিতে তিতাস থানায় এ মামলা নথিভুক্ত করা হয়। বুধবার (২৮ অক্টোবর) বিকালে উক্ত মামলায় অভিযুক্তকে আটক করে কোর্টে প্রেরণ করা হয়। অভিযুক্ত ব্যক্তির নাম শাওন (৩৫)। তিনি একই গ্রামের মনিরুজ্জামানের ছেলে। সম্পর্কে তিনি নির্যাতনের শিকার ওই নারীর দেবর।

মামলার এজাহারে বলা হয়, ১৮ অক্টোবর রাতে আড়াই বছরের শিশুকন্যাকে নিয়ে তার মা ঘুমিয়ে পড়েন। শাওন ঘরের জানালা ভেঙ্গে ঘরে প্রবেশ করে এবং ওই নারীকে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। ওই নারী বাধা দিয়ে চিৎকার করতে চাইলে শাওন পাশে ঘুমিয়ে থাকা আড়াই বছরের শিশুকন্যার গলায় ছুরি ঠেকিয়ে তাকে হত্যার হুমকি দিয়ে ধর্ষণ করেন।

তিতাস থানার ওসি (তদন্ত) মো. শহীদুল ইসলাম জানান, আদালতের এজাহার পেয়ে মামলা রুজু করা হয়েছে। অভিযোগ পাওয়ার পর ভিকটিমের মেডিকেল চেকআপ করানো হয়।

আসামি শাওন ঘটনার কথা স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছে। আসামির বিরুদ্ধে একই অভিযোগে আগের একটি মামলা রয়েছে।