কুয়েটের দুই হলের ছাত্রদের মধ্যে সংঘর্ষ, হলত্যাগের নির্দেশ

খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুয়েট) দু’টি হলের ছাত্রদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে ছাত্র-ছাত্রীদের হলত্যাগ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

সংঘর্ষের পর শুক্রবার দিনগত রাত ১২টায় কুয়েটের অ্যাকাডেমিক কার্যক্রম অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করেছে কর্তৃপক্ষ। শনিবার (২ নভেম্বর) বিকেল ৫টার মধ্যে ছাত্রদের ছয়টি ও রবিবার (৩ নভেম্বর) সকাল ১০টার মধ্যে ছাত্রীদের একটি হল খালি করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

কুয়েটের রেজিস্ট্রার জি এম শহিদুল আলম অনির্দিষ্টকালের বন্ধ ঘোষণার বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে অমর একুশে হল ও ফজলুল হক হলের ছাত্রদের মধ্যে সংঘর্ষে পাঁচ-ছয় জন আহত হন। রাতে বিষয়টি নিয়ে হলগুলোতে উত্তেজনা সৃষ্টি হলে সেগুলো বন্ধ ঘোষণা করা হয়।

খানজাহান আলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শফিকুল ইসলাম ক্যাম্পাসে পুলিশ মোতায়েন করার বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন।

সংঘর্ষে আহতদের মধ্যে শাহ আলম ও আকবরকে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। বিষয়টি বড় ধরনের উত্তেজনায় রূপ নিতে পারে এমন আশঙ্কায় বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাকাডেমিক কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।