কৃষি কাজের জন্য গভীর নলকূপ স্থাপনে শাস্তি ৫০ হাজার টাকা


কৃষি কাজের জন্য অননুমোদিত গভীর নলকূপ স্থাপন ও ব্যবহারের শাস্তি ৫০ হাজার টাকা, অনাদায়ে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের বিধান রেখে ‘কৃষি কাজে ভূ-গর্ভস্থ পানি ব্যবস্থাপনা বিল- ২০১৮’ সংসদে পাস হয়েছে।

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চোধুরীর সভাপতিত্বে সংসদের শীতকালীন অধিবেশনে রবিবার কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী বিলটি পাস করার প্রস্তাব করলে কণ্ঠভোটে তা পাস হয়।

এর আগে বিলটির ওপরে আনা সংশোধনী ও বাছাই কমিটিতে প্রেরণের প্রস্তাব নাকচ হয়ে যায়।

বিলে কৃষি কাজের জন্য গভীর নলকূপ স্থাপনে শাস্তি বাড়ানো হয়েছে। বিদ্যমান আইনে জরিমানা সর্বোচ্চ দুই হাজার টাকা ছিল। নতুন আইনে তা বাড়িয়ে ৫০ হাজার টাকা বা অনাদায়ে ৩০ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের বিধান যুক্ত হয়েছে। আইনটি পাসের পর বিদ্যমান নলকূপগুলোকে নতুন করে লাইসেন্স নিতে হবে। এজন্য সময় ও সুযোগ দেওয়া হবে বলে বিলে উল্লেখ করা হয়েছে। বিলের বিধান অনুযায়ী, উপজেলা পরিষদ নলকূপের লাইসেন্স স্থগিত ও বাতিল করতে পারবে।

বিলের উদ্দেশ্য ও কারণ সম্বলিত বিবৃতিতে বলা হয়, উচ্চ আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী সামরিক শাসনামলে প্রণীত বাতিল হওয়ার অধ্যাদেশসমূহ আবশ্যিকতা বিবেচিত হওয়ায় সংশোধন ও পরিমার্জন করে বাংলায় প্রণয়নের সিদ্ধান্ত হয়। ‘দ্য গ্রাউন্ড ওয়াটার ম্যানেজমেন্ট অর্ডিন্যান্স, ১৯৮৫’ বাংলায় ভাষায় ‘কৃষি কাজে ভূ-গর্ভস্থ পানি ব্যবস্থাপনা আইন- ২০১৮’ প্রণয়ন করা হয়েছে। বিলে কৃষি উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষায় সেচ কাজে পানির অপচয় রোধ ও ভূ-গর্ভস্থ পানির সুপরিকল্পিত ব্যবহার নিশ্চিত করতে এবং পানির সর্বোত্তম ব্যবহার নিশ্চিত ও তার ব্যবস্থাপনা পদ্ধতির উন্নয়নে প্রয়োজনীয় বিধি-বিধানের প্রস্তাব করা হয়েছে।