গভীর কষ্ট পেয়েছিলাম: জোলি


হলিউডের অন্যতম আলোচিত জুটি ব্র্যাড পিট ও অ্যাঞ্জেলিনা জোলি। বিয়ের মাত্র ‍দুই বছরের মাথায় বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নেন তারা।

সম্প্রতি একটি ফরাসি ম্যাগাজিনে সাক্ষাৎকার দিয়েছেন অ্যাঞ্জেলিনা জোলি। সাক্ষাৎকারে ব্র্যাডের সঙ্গে বিচ্ছেদের পরের মুহূর্তের স্মৃতিচারণ করেছেন তিনি।

অ্যাঞ্জেলিনা জোলি বলেন, জানি না ভাগ্যে কী আছে কিন্তু বুঝতে পারছি নিজের মধ্যে একটা পরিবর্তন কাজ করছে। অনেকটা শিকড়ে, নিজের রূপে ফেরার মতো। কারণ নিজেকে হারিয়ে ফেলেছিলাম। মনে হয়, ব্র্যাডের সঙ্গে আমার বিচ্ছেদের কারণে এটা হয়েছে।

৪৪ বছর বয়সি এই অভিনেত্রী আরো বলেন, এটা খুবই জটিল একটা মুহূর্ত ছিল। নিজেকে চিনতে পারছিলাম না। ছোট, অনেকটা তুচ্ছ হয়ে গিয়েছিলাম। সত্যিই গভীরভাবে কষ্ট পেয়েছিলাম। তবে এই সকল বিষয়ই মনে করিয়ে দেবে, আপনি কতটা সৌভাগ্যবান যে এখনো বেঁচে আছেন।

২০০৪ সালে মিস্টার অ্যান্ড মিসেস স্মিথ সিনেমার শুটিং সেটে বন্ধুত্ব হয় ব্র্যাড পিট ও অ্যাঞ্জেলিনা জোলির। তখন জেনিফার অ্যানিস্টনের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ ছিলেন পিট। ২০০৫ সালে পিট-অ্যানিস্টনের বিবাহ বিচ্ছেদ হয়। পরবর্তীতে পিট-জোলির মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক তৈরি হয়। দীর্ঘ দশ বছর একসঙ্গে থাকার পর ২০১৪ সালে আগস্টে বিয়ে করেন পিট-জোলি। এরপর ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বরে ব্র্যাডের কাছ থেকে বিচ্ছেদ চেয়ে আদালতে আবেদন করেন জোলি।

‘ব্র্যাঞ্জেলিনা’ দম্পতির ছয় সন্তান— ম্যাডক্স, প্যাক্স, জাহারা, শিলোহ, নক্স, ভিভিয়েন। এরমধ্যে প্রথম তিন সন্তানকে দত্তক নিয়েছিলেন এ জুটি।