গুজব ঠেকাতে ফেসবুককে বাংলাদেশ সরকারের তিন প্রস্তাব


ফেসবুকের মাধ্যমে গুজব ছড়ানোসহ অপরাধপ্রবণ কনটেন্ট রোধে ফেসবুক কর্তৃপক্ষের কাছে তিনটি প্রস্তাব দিয়েছে বাংলাদেশ সরকার। গতকাল মঙ্গলবার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ডিজিটাল অপরাধ প্রতিরোধ, দমন, নিয়ন্ত্রণ, মনিটরিং এবং আইনগত ব্যবস্থাগ্রহণ বিষয়ক এক কর্মশালায় ফেসবুক কর্তৃপক্ষের কাছে প্রস্তাবগুলো দেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। পরে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেন।

জানা গেছে, ফেসবুকে অপরাধ করে যেন প্রকৃত পরিচয় গোপন করতে না পারে সেজন্য ফেসবুক আইডিতে মোবাইল নম্বর যুক্ত করা ও এনআইডি যাচাইয়ের মাধ্যমে আইডি খুলতে দেওয়ার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়াও গুজব ও অপরাধপ্রবণ কনটেন্টগুলো শনাক্ত করে তাৎক্ষণিক তা প্রত্যাহারে ফেসবুকের কার্যকর ভূমিকা রাখার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে।

এ ব্যাপারে তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, ‘ফেসবুককে তিনটি প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। ফেসবুকের গুজব ছড়ানো ঠেকাতে বিশেষ ব্যবস্থা হিসেবে এ প্রস্তাব দেওয়া হয়। ফেসবুক ব্যবহারকারীদের প্রকৃত পরিচয় শনাক্ত করতে পারলে সমস্যার সমাধান সম্ভব। অপরাধ নিয়ন্ত্রণে ফেসবুক আইডি ভেরিফাই করতে হবে। কনটেন্ট ফিল্টারিংয়েও ফেসবুকের ভূমিকা রাখার কথা বলেছি।’

তিনি আরো বলেন, দেশ বিপন্ন করে তো আর প্রযুক্তি চর্চা করা যাবে না। আগে দেশ, পরে প্রযুক্তি। এর আগে ফেসবুকের মাধ্যমে গুজব ছড়িয়ে পড়াকে কেন্দ্র করে ফেসবুকের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছিল। তাদের এ বিষয়ে কার্যকর ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে।