গৃহহীনদের বিনামূল্যে খাবার দিচ্ছে মেসির রেস্তোরাঁ


আর্জেন্টিনায় চলছে তীব্র শীত। সেইসঙ্গে অর্থনৈতিক মন্দায় জর্জরিত হয়ে পড়েছে দেশটি। বাড়ছে দরিদ্র মানুষের সংখ্যা। অনেকেই তীব্র শীতে আশ্রয় নিয়েছে রাস্তায়। আর এই বাস্তুহারা দরিদ্র মানুষের পাশে হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন আর্জেন্টিনার তারকা ফুটবলার লিওনেল মেসি। সংবাদমাধ্যম ডেইলি মিররের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা গেছে।

আর্জেন্টিনার রোজারিও শহরে মেসির আদি নিবাস। সেখানে মেসি পরিবারের রয়েছে একটি পানশালা ও রেস্তোরাঁ। রেস্তোরাঁর নাম ‘ভিআইপি’। সেখান থেকেই গৃহহীনদের এই দুর্দশায় দেওয়া হচ্ছে বিনামূল্যে খাবার, সেইসঙ্গে কফি এবং উষ্ণপানীয়। শুধু তাই নয়, শীতে শরীর গরম রাখার জন্য পানশালা থেকে দেওয়া হচ্ছে ওয়াইন। বলতে গেলে তীব্র শীতে একজন বাস্তুহারা দরিদ্র মানুষকে যতটা সহযোগিতা করা যায়, ততটাই চেষ্টা করছেন মেসি।

এই দুর্দশা কিছুটা না থামা পর্যন্ত আগামী দুই সপ্তাহ এই কার্যক্রম চালানো হবে বলে জানিয়েছে রেস্তোরাঁ কর্তৃপক্ষ।

মেসি পরিবারের ‘ভিআইপি’ রেস্তোরাঁর ম্যানেজার অ্যারিয়েল আলমাদা বলেছেন, ‘আমরা আমাদের পক্ষ থেকে গৃহহীনদের বিনামূল্যে খাবার, কফি ও পানীয় দিচ্ছি। এ ছাড়াও অনেকের প্রয়োজনে ওয়াইনও দেওয়া হচ্ছে। অনেক মানুষই আমাদের রেস্তোরাঁয় এসে কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছেন।’

অ্যারিয়েল আলমাদা আরো বলেন, ‘আমরা এই কার্যক্রম আগামী ১৫ দিন পর্যন্ত সন্ধ্যা ৭টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত চালাব।’

রেস্তোরাঁর পক্ষ থেকে বাস্তুহারা মানুষদের বিনামূল্যে গরম কাপড়ের ব্যবস্থা করা হচ্ছে বলেও জানিয়েছেন অ্যারিয়েল আলমাদা।

লিও মেসি ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে বরাবরই বিভিন্ন চ্যারিটিতে যুক্ত থাকেন লিওনেল মেসি। এর আগে কেনিয়াতে পানি বিষয়ক একটি প্রকল্পের কাজে ইউনিসেফের সঙ্গে যোগ দিয়ে দুই লাখ ইউরো সহায়তা করেছিল লিও মেসি ফাউন্ডেশন।

ওই অর্থ কেনিয়াতে পানির পাম্প নির্মাণ ও খাদ্য সহায়তায় ব্যবহার করা হয়েছিল। এর ফলে ওই অঞ্চলের অন্তত দুই হাজার মানুষ তাঁদের ঘরে এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পানির সহায়তা পাচ্ছে।