গোপালগঞ্জে আন্তঃজেলা চোর চক্রের ২ সদস্য গ্রেপ্তার

গোপালগঞ্জে আন্তঃজেলা ইজিবাইক চোর চক্রের দুই সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

এসময় মোটরসাইকেল ব্যবসার আড়ালে চোরাই রিকশা-ভ্যান বিক্রির কারখানার সন্ধান পেয়েছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (২৮ জুলাই) রাতে জেলা শহরের গেটপাড়া ও কুয়াডাঙ্গা এলাকা থেকে এদের গ্রেপ্তার করা হয় ও কারখানার সন্ধান পাওয়া যায়।

গোপালগঞ্জ সদর থানার উপ-পরিদর্শক রাজু আহমেদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, জেলা শহরের গেটপাড়া এলাকা থেকে কিবরিয়া নামের এক রিকশাচালকের রিকশা চুরি হয়। পরে রিকশা খোঁজ করতে গিয়ে রিকশাসহ দুই চোর ইব্রাহিম ও নাহিদকে আটক করে গণধোলাই দেয় এলাকাবাসী।

পরে আটক দুই চোরের দেয়া তথ্য মতে এলাকাবাসী শহরের কুয়াডাঙ্গা এলাকার হারুনার রশিদ বাবলুর মোটরসাইকেলের শো-রুম নাফিসা মোটরসের ভবন ঘিরে ধরে।

পরে পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই মোটরসাইকেল শো-রুমের পিছনের কয়েকটি রুম থেকে চোরাই রিকশা, ভ্যান, ইজিবাইক, ব্যাটারি ও যন্ত্রাংশসহ বিপুল পরিমাণ চোরাই মালামাল জব্দ করে। এ ঘটনার পরপরই নাফিসা মোটরসের মালিক হারুনার রশিদ বাবলু ও তার ভাই সেন্টু ইবনে রাজ্জাক পালিয়ে যায়।

তিনি আরো জানান, নাফিসা মোটরসের মলিক ও তার ভাই মোটর সাইকেল বিক্রির আড়ালে দীর্ঘ দিন ধরে চোরাই মালামাল বিক্রি করে আসছিল। এ ঘটনায় গোপালগঞ্জ সদর থানার একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।