ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ সাতক্ষীরায় আঘাত হেনেছে, সুন্দরবন ক্ষতিগ্রস্ত


সুন্দরবন উপকূলে আঘাত হানার পর ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ আরো সামান্য উত্তর-পূর্ব দিকে অগ্রসর হয়ে সাতক্ষীরায় শ্যামনগর উপজেলায় আঘাত হেনেছে। গতকাল শনিবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে ‘বুলবুল’-এর আঘাতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে সুন্দরবনের এই অঞ্চল।

রোববার সকাল ৮টার দিকে শ্যামনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. কামরুজ্জামান গণমাধ্যমকে বলেন, ‘ঘূর্ণিঝড়ের দাপটে গাবুরা ইউনিয়নের ৮০ শতাংশ কাঁচা ও আধাপাকা ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে। দুর্গাবাটি, দাতিনাখালি ও চৌদ্দরশিসহ আরো কিছু বাঁধ মারাত্মক ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে।’

ঝড়ের তাণ্ডবে সাতক্ষীরা থেকে শ্যামনগরমুখী রাস্তায় প্রচুর গাছপালা বিধ্বস্ত হয়েছে। এর ফলে সেখানে যোগাযোগ ব্যবস্থা ব্যাহত হচ্ছে বলে জানান ইউএনও কামরুজ্জামান। তিনি আরো জানান, নদীতে এ সময় ভাটা থাকলেও ঝড়ের তাণ্ডবে নদীর পানি বেড়িবাঁধ পর্যন্ত ছুঁয়ে যায়। আজ সকাল ৭টায় জোয়ারের পর থেকে জলোচ্ছ্বাসের আশঙ্কা বৃদ্ধি পেয়েছে।

‘রাস্তায় গাছ পড়ে যোগাযোগ ব্যাহত হচ্ছে। পুরো এলাকা বিদ্যুৎ ও ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। গাবুরা, পদ্মপুকুর, আটুলিয়া, কাশিমারিসহ বিভিন্ন ইউনিয়নের শত শত চিংড়ি ঘের পানিতে তলিয়ে গেছে।’

ইউএনও আরো জানান, সকাল সাড়ে ৮টার দিকে বাতাসের গতিবেগ কিছুটা কমে এসেছে। তবে ‘বুলবুল’-এর তাণ্ডব এখনও কমেনি। ঝড় পুরোপুরি না থামলে উদ্ধার তৎপরতা চালানো সম্ভব হচ্ছে না বলেও জানান তিনি।