দেশে চিনি শিল্প রাখা উচিত নয় : অর্থমন্ত্রী


চিনি শিল্প টিকে আছে আখের ওপর নির্ভর করে। এ ক্ষেত্রে আমাদের অনেক ভর্তুকি দিতে হয়।তাই দেশে চিনি শিল্প রাখা উচিত নয় বলে মন্তব্য করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

অর্থমন্ত্রী বলেছেন, চিনির উৎপাদন খরচ বেশি হয়। এরচেয়ে বিদেশ থেকে চিনি আমদানি করলে দাম কম হতো।’

আজ বুধবার দুপুরে সচিবালয়ের অর্থ মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে ইকোনমিক রিপোর্টার্স ফোরাম (ইআরএফ) নেতৃবৃন্দের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় অর্থমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

এ সময় দেশের অর্থ পাচারের কথাকে ‘গুজব’ মন্তব্য করেন অর্থমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘অর্থ পাচারের কথা যতটা শোনা যায়, ততটা ঠিক না। অনেকটাই গুজব।’

মতবিনিময় সভায় অর্থমন্ত্রী আসন্ন বাজেটের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন।

অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘মাধ্যমিক পর্যায়ের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পর্যায়ক্রমে জাতীয়করণ করা হবে। নতুন কিছু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করতে বাজেটের অর্থ বরাদ্দ থাকবে। এবার বাজেটে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব পাবে মানবসম্পদ উন্নয়ন। পরিবহন ও জ্বালানি খাতও থাকবে অগ্রাধিকারের তালিকায়। আগামী ৩০ জুন বাজেট পাস হবে।’

এ ছাড়া অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘জঙ্গিবাদ নির্মূলে বাংলাদেশ কার্যকর ভূমিকা পালন করেছে, এটা বিশ্বস্বীকৃত। এবার বাজেটের আওতা আরো বাড়বে।’

সভায় অর্থ মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ ইকোনমিক রিপোর্টার্স ফোরামের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।