জিভে কপালে তুলে গিনেস রেকর্ড!


বিস্ময়ে হতবাক হয়ে চোখ কপালে তোলা যায় এক্সপ্রেশন দিয়ে। কিন্তু জিভে কপালে তোলা!- তাও আবার গিনেস বুকে রেকর্ড গড়ার আশা!

নেপালে স্কুলবাসের চালক ইয়াগ্য বাহাদুর কোতোয়াল সেই কাজটি করছেন। ৩৫ বছর বয়সী এই যুবক দাবি করেছেন, তার রয়েছে পৃথিবীর দীর্ঘতম জিহ্বা যা দিয়ে কপাল স্পর্শ করা যায়। পঞ্চ ইন্দ্রিয়ের এই গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গটি দিয়ে নিচের ঠোঁট থেকে শুরু করে ভ্রু পর্যন্ত ঢেকে কপাল ছোঁয়া যায় বলে দাবি করেছেন তিনি।

এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে কোতোয়াল এখন স্থানীয় সেলিব্রেটি। তার এই দক্ষতা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন তার এক বন্ধু।

যাই হোক, কোতোয়ালকে সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে যেন তিনি তার অস্বাভাবিক দক্ষতা প্রদর্শন না করেন। কারণ এতে শিক্ষার্থীরা ভয় পাচ্ছে। কোতোয়াল বলেন, ‘শিশুরা কখনো আমার কাছে আসতে চায় না। তাদের কেউ কেউ ভয়ে প্যান্ট ভিজিয়ে ফেলে। এমনকি প্রাপ্তবয়স্করাও জ্ঞান হারায় আমার দক্ষতা দেখে।’

কোতোয়াল আরো বলেন, ‘যদি আমি কোনো হরোর মুভিতে কাজ করতে পারতাম, তাহলে অন্য কলাকুশলিদের মতো আমার মেকআপের প্রয়োজন হতো না, মানুষ এমনিতেই ভয় পেত।’

তবে এ ব্যাপারে অন্যদের মত নিয়ে কোতোয়াল বিব্রত নন। জিভে টেনে নিজের ঠোঁট নাক মুখ সব ঢেকে তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি, আমার এই চেহারা তৈরির ক্ষমতা অনেক বড় কিছু।’

সিনেমায় কাজ করার সুযোগ পান আর না পান, কোতোয়াল আশা করছেন এই দক্ষতায় গিনেস বুকের রেকর্ড তালিকায় তার নাম উঠবে।