টমেটো খান, মুখেও লাগান

এখন শীতের মৌসুম। বাজারে ঢুঁ মারলেই তাজা টমেটো মিলবে। শুধু রান্নায় নয়, ত্বকের যত্নে টমেটোর উপকারিতা অনেক। টমেটোতে রয়েছে প্রচুর ভিটামিন সি ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। ত্বকের রুক্ষতা ও কালো দাগ দূর করতে দারুণ কার্যকর টমেটো।

ভারতের বিখ্যাত ফ্যাশনবিষয়ক সাময়িকী ফেমিনার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, টমেটোতে থাকা অ্যান্টিফাঙ্গাল ও অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল উপাদান ব্রণের বিরুদ্ধে লড়াই করে। টমেটো ত্বকের অতিরিক্ত তেল ও ময়লা দূর করে। আসুন, জেনে নিই কীভাবে টমেটো ত্বকে ব্যবহার করবেন—

তৈলাক্তভাব দূরীকরণে

টমেটো ত্বকের তৈলাক্তভাব দূর করে। একটি টমেটো অর্ধেক করে কাটুন। এরপর পুরো মুখে ঘষুন। দৈনিক এটি করলে ত্বকের তৈলাক্তভাব দূর হবে।

ত্বকের উজ্জ্বলতায়

একটি টমেটো নিন এবং সেটি পিষুন। এবার ওই তরলে যোগ করুন দুই চা চামচ ফুলার’স আর্থ ও এক চা চামচ মিন্ট পেস্ট। এবার মিশ্রণটি মুখে লাগান এবং শুকাতে দিন। শুকিয়ে গেলে হালকা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

সানবার্ন কমাতে

ত্বকে রোদে পোড়াজনিত সমস্যা সমাধানে কার্যকর টমেটো। অর্ধেক টমেটোর রস তৈরি করুন এবং তাতে দুই টেবিল চামচ বাটারমিল্ক মেশান। ভালোভাবে মেশানোর পর পুরো মুখে লাগান। ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধোয়ার আগে ১৫ থেকে ২০ মিনিট মিশ্রণটি ত্বকে রেখে দিন।

ক্লিনজার হিসেবে

দুটি লেবু নিন এবং চার ভাগ করে কাটুন। একটি পাত্রে সেগুলো আইস কিউবের সঙ্গে রাখুন। এবার সেখানে ২০টি পুদিনাপাতা ও অল্প টমেটো দিন। ওই পাত্রটিকে এবার এক ঘণ্টা ফ্রিজারে রাখুন। এরপর সেখান থেকে বের করে ব্লেন্ড করে পেস্ট তৈরি করুন। পেস্টে দানাদার চিনি মেশান। এবার ত্বকে লাগান।

উক্ত পদ্ধতিগুলো ব্যবহার করুন। দেখবেন, আপনার ত্বক হয়ে উঠেছে আরো কমনীয় ও উজ্জ্বল। এ ছাড়া রোদের কারণে হওয়া লালচে ভাব দূরীকরণে সাহায্য করে টমেটো।