ট্রাম্পকে একহাত নিলেন অস্কারজয়ী মেরিল স্ট্রিপ

000

গোল্ডেন গ্লোব অ্যাওয়ার্ডসের ভরা মজলিশে নবনির্বাচিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে একহাত নিয়েছেন তিনবার অস্কারজয়ী হলিউড তারকা ও গায়িকা মেরিল স্ট্রিপ। ট্রাম্পও চুপ করে থাকার লোক নন। টুইটারে পাল্টা আঘাত করেছেন তিনি।

গত রোববার রাতে যুক্তরাষ্ট্রের বেভারলি হিলসে ৭৪তম গোল্ডেন গ্লোব অ্যাওয়ার্ডসের আসরে ‘সেসিল বি ডেমিলে’ লাইফটাইম অ্যাচিভমেন্ট পুরস্কার গ্রহণ করেন মেরিল স্ট্রিপ।

পুরস্কার গ্রহণকালে আবেগঘন এক জ্বালাময়ী ভাষণ দেন এই অভিনেত্রী। তাঁর ভাষণ মন্ত্রমুগ্ধ হয়ে শোনেন দর্শকেরা।

পুরো ভাষণে ট্রাম্পের নাম উল্লেখ না করে তাঁর কড়া সমালোচনা করে তুমুল আলোচনার জন্ম দিয়েছেন মেরিল স্ট্রিপ।

ভাষণটি ভাইরাল হয়েছে। ইউটিউবে ইতিমধ্যে ১০ লাখের বেশি মানুষ এই ভাষণ শুনেছেন।

মেরিল স্ট্রিপ তাঁর ভাষণে বলেন, ‘এ বছর একটি কৃতকর্ম আমাকে হতবাক করেছে। আমার হৃদয়ে এটি আঁকশি বসিয়েছে। তবে তা যে ভালো কিছু, তা নয়। এতে আসলে ভালো বলে কিছুই নেই। তবে তা ফলদায়ক।’

নির্বাচনী প্রচারের সময় এক প্রতিবন্ধী প্রতিবেদককে ট্রাম্পের ব্যঙ্গ করার প্রসঙ্গ উল্লেখ করেন মেরিল স্ট্রিপ। তিনি বলেন, ওই সময় এমন এক ব্যক্তি এক প্রতিবন্ধী প্রতিবেদককে ব্যঙ্গ করেছিলেন, যিনি দেশের সবচেয়ে মর্যাদাপূর্ণ আসনে বসতে আগ্রহী ছিলেন। তিনি সুযোগ-সুবিধা, ক্ষমতা ও সক্ষমতায় অনেক ওপরে ছিলেন।

মেরিল স্ট্রিপ বলেন, ওই দৃশ্য দেখে তাঁর হৃদয় ভেঙে যায়। তিনি এখনো তা ভুলতে পারছেন না। কারণ, তা কোনো সিনেমা ছিল না। ছিল বাস্তবের ঘটনা।

মেরিল স্ট্রিপ বলেন, শক্তিশালী কেউ যদি প্রকাশ্যে কাউকে অপমানিত করেন, তাহলে তার প্রভাব সবার জীবনে পড়ে। অসম্মান অসম্মানই ডেকে আনে। সহিংসতা উসকে দেয় সহিংসতা।

২০১৫ সালে সাউথ ক্যারোলিনায় এক প্রচারসভায় ট্রাম্প নিউইয়র্ক টাইমসের শারীরিক প্রতিবন্ধী প্রতিবেদক সেরগে কোভালেস্কিকে ব্যঙ্গ করেছিলেন। তবে পরে ট্রাম্প বিষয়টি অস্বীকার করেন।

ট্রাম্পের অভিবাসনবিরোধী নীতিরও সমালোচনা করেন মেরিল স্ট্রিপ। তিনি বলেন, বহিরাগত ও বিদেশিদের ওপর ভর করে হলিউড ধীরে ধীরে এগিয়ে চলছে। এখন যদি সবাইকে লাথি মেরে বের করে দেওয়া হয়, তাহলে ফুটবল ও মিক্সড মার্শাল আর্ট ছাড়া দেখার কিছুই থাকবে না। আর এগুলো শিল্প নয়।

মেরিল স্ট্রিপের সমালোচনার জবাব দিতে টুইটার বেছে নিয়েছেন ট্রাম্প।

মেরিল স্ট্রিপকে হলিউডের অন্যতম ‘বেশি দাম দেওয়া অভিনেত্রী’ বলে অভিহিত করেছেন নবনির্বাচিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট। তিনি বলেছেন, মেরিল স্ট্রিপ তাঁকে চেনেন না। অথচ গতকাল রাতে গোল্ডেন গ্লোবের আসলে তাঁকে আক্রমণ করেছেন।

ট্রাম্পের ভাষ্য, মেরিল স্ট্রিপ হিলারি ক্লিনটনের চামচা, নির্বাচনে যাঁর ভরাডুবি হয়েছে।

ট্রাম্প বলেন, ‘১০০ বারের মতো বলছি, আমি কখনোই একজন প্রতিবন্ধী প্রতিবেদককে ব্যঙ্গ করিনি।’