ট্রিপল সেঞ্চুরিতে ইতিহাস গড়লেন ওয়ার্নার

মোহাম্মদ আব্বাসের শর্ট বল পুল করলেন ডেভিড ওয়ার্নার। মিড অন দিয়ে বল চলে গেল বাউন্ডারিতে। ততক্ষণে শুরু হয়ে গেছে তার সেই ট্রেডমার্ক উদযাপন। সেটি এবার একটু বেশিই লম্বা হলো। দৌড়ে গিয়ে প্রথমে চিরচেনা সেই লাফ। এক হাতে ব্যাট, আরেক হাতে হেলমেট নিয়ে দুহাত উঁচিয়ে অভিনন্দনের জবাব, সঙ্গে গর্জন। এরপর হেলমেটে চুমু। আরও একবার লাফ।

উদযাপন তো একটু বেশি হওয়ারই কথা। ওই চারেই যে টেস্ট ক্যারিয়ারের প্রথম ট্রিপল সেঞ্চুরি পেয়ে গেছেন ওয়ার্নার।

অ্যাডিলেডে পাকিস্তানের বিপক্ষে দিবারাত্রির টেস্টের দ্বিতীয় দিন শনিবার প্রথমে আগের দিনের সেঞ্চুরিকে তিনি রূপ দেন ডাবলে। এরপর সেটিকে রূপান্তর করেন ট্রিপলে।

দ্বিতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে গোলাপি বলের টেস্টে ট্রিপল সেঞ্চুরি করলেন ওয়ার্নার। এই টেস্টেই খেলা পাকিস্তান অধিনায়ক আজহার আলী এর আগে করেছিলেন অপরাজিত ৩০২, ২০১৬ সালে দুবাইয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে।

লাল কিংবা গোলাপি বলের টেস্ট; প্রায় তিন বছর পর কোনো ব্যাটসম্যান ট্রিপল সেঞ্চুরি করলেন। সবশেষ ২০১৬ সালের ডিসেম্বরে চেন্নাইয়ে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ভারতের করুন নায়ার করেছিলেন অপরাজিত ৩০৩।

এছাড়া অ্যাডিলেড ওভালে এই প্রথম কোনো ব্যাটসম্যান ট্রিপল সেঞ্চুরি করলেন। ওয়ার্নার ছাড়িয়ে গেছেন এই মাঠে ৮৮ বছর আগে স্যার ডন ব্র্যাডম্যানের করা অপরাজিত ২৯৯ রানকে।

ওয়ার্নারের ইনিংসটা থেমে যেতে পারত অবশ্য ২২৬ রানেই। মোহাম্মদ মুসার অফ স্টাম্পের বাইরের বল ড্রাইভ করে ক্যাচ দিয়েছিলেন গালিতে। কিন্তু মুসা ওভারস্টেপিং করেছিলেন। নো বলের কল্যাণে বেঁচে যান ওয়ার্নার।