ধূমপানমুক্ত সুইডেন গড়তে নতুন আইন


সুইডেনে জনসম্মুখে ধূমপান নিষিদ্ধ করতে নতুন আইন চালু হয়েছে। এই আইনে নিষেধাজ্ঞার আওতায় ই-সিগারেটওকেও রাখা হয়েছে। সুইডেনের প্রধানমন্ত্রী স্টেফ্যান লোফভেনের আগামী ২০২৫ সালের মধ্যে দেশটিকে ধূমপানমুক্ত করার লক্ষ্যের অংশ হিসেবে এই পদক্ষেপ নিয়েছেন বলে জানা গেছে।

আগামী শনিবার (১৩ জুলাই) থেকে নতুন নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে। সরকারের এমন উদ্যোগকে অধিকাংশ সুইডিশ নাগরিক স্বাগত জানালেও সমালোচনা করছেন কেউ কেউ।

ইউরোপের তৃতীয় সর্ববৃহৎ রাষ্ট্র সুইডেন। ৪ লাখ ৫০ হাজার ২শ’ ৯৫ বর্গকিলোমিটার আয়তনের দেশটিতে প্রতি বর্গকিলোমিটারে বাস করে মাত্র ২১ জন।

ধাপে ধাপে আগামী ছয় বছরে এ আইন বাস্তবায়ন করা হবে। সেই লক্ষ্যে বার, রেস্টুরেন্টের পর খেলার মাঠ, ট্রেন স্টেশন, বাস স্টপ-সহ জনসমাগমস্থলে ধূমপান নিষিদ্ধ করা হয়েছে। সরকারের এমন সিদ্ধান্তকে ইতিবাচক হিসেবে দেখছেন সাধারণ মানুষ।

ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের পরিসংখ্যান বলছে, সুইডেনে সিগারেট উৎপাদনের তুলনায় প্রাত্যহিক ধূমপায়ীদের সংখ্যা আনুপতিকভাবে কমছে।

নতুন এই আইনটিকে বিরোধিতার মুখোমুখি হতে হয়েছে । আইনটি কার্যকর হওয়ার আগের রাতে সুইডেনের অন্যতম রাজনৈতিক দল লিবারেল পার্টির চেয়ারম্যান জোয়ার ফরসেল এমন পোশাক পরেন, যা দেখতে অনেকটা সিগারেটের মতো।

তিনি ধূমপায়ী না হয়েও তার ২০ জন সহকর্মীর সঙ্গে দেশটির গটল্যান্ড দ্বীপের ভিসবি শহরের একটি রেস্টুরেন্টে একটার পর আরেকটা সিগারেট নিঃশেষ করেন।