ধোনির নেতৃত্ব নিয়ে প্রশ্ন তুললেন গম্ভীর

টুর্নামেন্টের শুরুটা দারুণ হয়েছে চেন্নাই সুপার কিংসের। তবে সেই ম্যাচে কিছু করতে হয়নি অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনির। সাত নম্বরে নেমে তিনি শূন্য রানে অপরাজিত থাকলেও দল জিতেছে।

আলোচনা শুরু হয়েছে দ্বিতীয় ম্যাচ নিয়ে। যেখানে দলের কঠিন মুহূর্তে অনেক দেরিতে ব্যাটিংয়ে নামলেন ধোনি। ফিনিশার হিসেবে ধোনির খ্যাতি বিশ্বজুড়ে। কিন্তু গতকাল মঙ্গলবার দল যখন জয়ের দুয়ারে, তখন নিজে না নেমে ঋতুরাজ গায়কোয়াড়কে ব্যাটিংয়ে পাঠালেন ভারতের সাবেক এই অধিনায়ক।

এরপর নিজে নেমেও আইপিএলে ধীর লয়ে খেললেন। শেষ ওভারে তিন বলে টানা তিন ছক্কা মেরেছেন ঠিকই, কিন্তু সেই ছক্কাগুলো তাঁর স্ট্রাইকরেটই কেবল বাড়িয়েছে দলের কোনো কাজে আসেনি। এমন অভিযোগ করে ধোনির কড়া সমালোচনা করেছেন আরেক ভারতীয় তারকা গৌতম গম্ভীর। ক্রিকেটভিত্তিক ওয়েবসাইটে এক অনুষ্ঠানে গম্ভীর বললেন, ধোনির ওই ছক্কাগুলোর কোনো গুরুত্বই নেই। সেইসঙ্গে ধোনির নেতৃত্ব নিয়েও প্রশ্ন তুললেন গম্ভীর।

এদিন টস হেরে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে সাত উইকেটে ২১৬ রান সংগ্রহ করে রাজস্থান। ২১৭ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে ২০০ রানে থামে চেন্নাই। দলটিকে জেতাতে প্রাণপণ চেষ্টা করেন ফাফ ডু প্লেসি। কিন্তু শেষের দিকে বল না থাকায় জয় অধরাই রইল ধোনিদের। ম্যাচটিতে ২৯ রান করেছেন ধোনি। তবে এই সংখ্যাটা শুধু তাঁর নিজের পরিসংখ্যানেই যোগ হয়েছে। দলের কোনো কাজে আসেনি।

ইএসপিএন ক্রিকইনফোর টি-টোয়েন্টি টাইম আউট অনুষ্ঠানে এ ব্যাপারে গম্ভীর বললেন, ‘সত্যি বলতে আমি অনেক বিস্মিত হয়েছি। ধোনি সাত নম্বরে ব্যাট করতে নেমেছে? নিজের আগে গায়কোয়াড়কে পাঠিয়েছে, স্যাম কারানকে পাঠিয়েছে। আমার কাছে এর কোনো ব্যাখ্যা নেই।’

এরপর ধোনির নেতৃত্ব নিয়ে গম্ভীর বলেন, ‘আপনার বরং সামনে থেকে নেতৃত্ব দেওয়া উচিত। আপনি যখন ২০১-এর (২১৭) মতো স্কোর তাড়া করছেন, সেখানে (ধোনির) সাতে নামা? ম্যাচ তো ততক্ষণে শেষই। ফাফই একা যুদ্ধ করে যাচ্ছিল।’

শেষের তিন ছক্কা নিয়ে গম্ভীর বলেন, ‘আপনি শেষ ওভারে ধোনির ছক্কাগুলোর কথা বলতে পারেন। কিন্তু সত্যি বলতে সেগুলোর কোনো গুরুত্বই ছিল না। সেগুলো শুধু ওর ব্যক্তিগত রানই হয়েছে। আপনি (আগে নেমে) তাড়াতাড়ি আউট হয়ে গেলে সেটাতে দোষের কিছু নেই, অন্তত সামনে থেকে নেতৃত্ব তো দেবেন, অন্যদের অনুপ্রাণিত করার চেষ্টা তো করবেন!’