নির্মল বাতাস পেতে এ সময় লাগান ঘরোয়া গাছ

প্রকৃতি আমাদের যা কিছু দান করেছে তার মধ্যে বিশেষ উপহার হচ্ছে গাছ। এর ফলে আমরা স্বাস্থ্যকর জীবনযাপন করতে পারি।

বছরের এই সময় গাছ লাগানোর জন্য সবচেয়ে উপযোগী। এমন কিছু গাছ আছে; যা আপনি বাড়িতে লাগিয়ে চারপাশের বাতাসকে বিশুদ্ধ করতে পারেন।

আসুন জেনে নেয়া যাক এরকম কয়েকটি গাছপালা সম্পর্কে-

অ্যালোভেরা

অ্যালোভেরা ঘৃতকুমারী নামেও পরিচিত। ঔষধিগুণসম্পূর্ণ অ্যালোভেরা ত্বক ও চুল ভালো রাখে। অ্যালোভেরা বাতাস পরিশোধন এবং ঘর ঠাণ্ডা রাখে। বেড়ে ওঠার জন্য সূর্যের আলোর প্রয়োজন হয় না। বায়ুতে থাকা ফর্মালডিহাইড, বেনজিন এবং কার্বন মনোঅক্সাইড অপসারণ করে এই গাছ।

তুলসী

তুলসী হচ্ছে ঔষধি গাছ। এই গাছ সাধারণত বাড়ির আঙিনায় লাগানো হয়। সামান্য সূর্যের আলোতেই বেড়ে উঠতে পারে এটি। মশা, পোকামাকড় দূর করে এবং বাতাসে অক্সিজেন বাড়িয়ে তোলে তুলসী। এছাড়া বাতাস থেকে অনেক ক্ষতিকারক রাসায়নিক এবং ব্যাকটেরিয়া পরিষ্কার করে।

মানি প্ল্যান্ট

সাধারণত এটি খুব সুন্দর ইনডোর প্ল্যান্ট। রক্ষণাবেক্ষণের খুব বেশি প্রয়োজন হয় না। সামান্য যত্ন পেলেই এই গাছ বেড়ে ওঠে। ঘরের বাতাস শুদ্ধ রাখতে এই গাছ বিশেষ সহায়ক। এই গাছ রাতে অক্সিজেন দেয় এবং বায়ুকে পরিশুদ্ধ করে।

স্নেক প্ল্যান্ট

স্নেক প্ল্যান্ট লিলি গোত্রের একটি বিশেষ ঘরোয়া গাছ। এই গাছ বাড়ির এমন জায়গায় রাখতে হবে; যেখানে হালকা আর্দ্রতা থাকে। অনেক ক্ষতিকর পদার্থ শোষণ ও বায়ু পরিশোধন করে এই গাছ।

স্পাইডার প্ল্যান্ট

স্পাইডার প্ল্যান্ট এমন একটি উদ্ভিদ যা বায়ু বিশুদ্ধ করে। বাতাস থেকে জাইলিন, বেনজিন, ফর্মালডিহাইড এবং কার্বন মনোঅক্সাইডের মতো ক্ষতিকারক উপাদান ফিল্টার করে।