পোশাককর্মীর বুকে কাঁচি ঢুকিয়ে হত্যা, সহকর্মী পলাতক

গাজীপুরের কামারজুরী এলাকায় সহকর্মীর হাতে শাহীন (২৭) নামের এক পোশাককর্মী খুন হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে কামারজুরী এলাকার বিসমিল্লাহ সোয়েটার কারখানার বাইরে এ ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত ব্যক্তির নাম ওয়াজিদ। শাহীন ও ওয়াজিদ ওই সোয়েটার কারখানায় কাজ করতেন।

নিহত শাহীন গাইবান্ধার পলাশবাড়ী থানাধীন সাতানা নওগাঁ গ্রামের মমতাজ মিয়ার ছেলে।

গাজীপুর মহানগর পুলিশের (জিএমপি) গাছা থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সজিব দেবনাথ জানান, পূর্ব পরিচয়ের সূত্র ধরে শাহীন ও তাঁর সহকর্মী ওয়াজিদ মিয়া কামারজুরী এলাকার বিসমিল্লাহ সোয়েটার কারখানায় সাব কন্ট্রাক্টে কাজ করতেন। আজ বৃহস্পতিবার সকালে কারখানার বাইরে তাঁদের দুজনের মধ্যে কথা কাটাকাটি ও ঝগড়া হয়। স্থানীয়রা তাৎক্ষণিকভাবে বিষয়টি মিটিয়ে দেন।

এ ঘটনার পর দুপুর আড়াইটার দিকে স্থানীয় বালুর মাঠ এলাকায় আবারও দুজনের মধ্যে ঝগড়া হয় এবং তাঁরা মারামারিতে জড়িয়ে পড়েন। এক পর্যায়ে ওয়াজিদ হাতে থাকা কাপড় কাটার কাঁচি দিয়ে শাহীনের বুকে আঘাত করে দ্রুত পালিয়ে যান। এতে শাহীন মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। পরে এলাকাবাসী শাহীনকে উদ্ধার করে স্থানীয় তায়রুন্নেছা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে মারা যান তিনি।

খবর পেয়ে আজ বিকেলে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠায় পুলিশ। এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। ওয়াজিদকে গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে বলেও জানিয়েছে পুলিশ।