বগুড়ায় বিএনএফ নেতা গ্রেপ্তার


একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বগুড়া-৩ (আদমদীঘি-দুপচাঁচিয়া) আসনের এক মনোনয়নপত্র দাখিলকারীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল সোমবার রাত পৌনে ৮টার দিকে বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার পশ্চিম সিংড়া গ্রামে নিজ বাড়ি থেকে ওই প্রার্থীকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃত প্রার্থীর নাম আবদুল কাদের জিলানী। তিনি ওই গ্রামের মৃত খলিলুর রহমানের ছেলে এবং বিএনএফের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য।

এলাকাবাসী জানায়, নির্বাচনে অংশগ্রহণের জন্য আবদুল কাদের জিলানী কিছুদিন আগে এলাকায় যাতায়াত শুরু করেন। এক পর্যায়ে তিনি বগুড়া-৩ আসন থেকে নির্বাচনের জন্য বিএনএফ থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন এবং তা সহকারী রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয়ে দাখিলও করেন।

এদিকে পুলিশ জানায়, আবদুল কাদের জিলানী এক সময় আদম ব্যবসায় সম্পৃক্ত ছিলেন। লোকজনকে বিদেশ পাঠানোর নাম করে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে ২০০৫ সালে নওগাঁ সদর থানায় তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়। নওগাঁ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত তাঁর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন। কিন্তু জিলানী আত্মগোপন করে ঢাকায় বসবাস শুরু করেন।

এ ব্যাপারে আদমদীঘি থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুল ইসলাম জানান, আবদুল কাদের জিলানী ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি। তিনি দীর্ঘদিন ধরে পলাতক থাকায় তাকে এতদিন গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়নি।

নির্বাচন কমিশনের অনুমতি ছাড়া মনোনয়নপত্র দাখিলকারী কোনো রাজনৈতিক দলের প্রার্থীকে গ্রেপ্তার করা যায় কি না- এমন প্রশ্নে ওসি বলেন, যেহেতু তার বিরুদ্ধে ওয়ারেন্ট ছিল তাই তাকে গ্রেপ্তারে নির্বাচন কমিশনের অনুমতির প্রয়োজন নেই।