বন্ধ হচ্ছে না ইন্টারনেট সেবা

বিকল্প ব্যবস্থা না করে আপাতত কোনো তার কাটা হবে না এমন আশ্বাসে ইন্টারনেট ও কেবল টিভি অপারেটরদের ধর্মঘট স্থগিত করা হয়েছে। আজ শনিবার সন্ধ্যায় ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার অ্যায়োসিয়েশন অব বাংলাদেশ (আইএসপিএবি) এবং কেবল অপারেটর অব বাংলাদেশ (কোয়াব) আয়োজিত এক জুম মিটিংয়ে এই ঘোষণা দেওয়া হয়।

জুম মিটিংয়ে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, ডাক ও টেলিযোগাযোগ সচিব মো. আফজাল হোসেন ছাড়াও কোয়াব এবং আইএসপিএবি নেতৃবৃন্দ যুক্ত ছিলেন।

এ সময় মোস্তাফা জব্বার বলেন, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিবকে জানানো হয়েছে। তিনি প্রধানমন্ত্রীকে সার্বিক বিষয় তুলে ধরবেন। আশা করি আমরা প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে দ্রুত পদক্ষেপ পাব। আপনারা ধর্মঘট প্রত্যাহার করেন।

তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রীও ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার ও কেবল টিভি অপারেটরদের ধমর্ঘটে না যাওয়ার আহ্বান জানান।

টেলিযোগাযোগ সচিব বলেন, সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে আপাতত আর কেবল কাটা হবে না।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন কর্তৃক মাথার ওপর ঝুলানো ইন্টারনেট ও কেবল টিভির তার অপসারণের প্রতিবাদে আইএসপিএবি ও কোয়াব আগামীকাল রোববার থেকে প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত সারা দেশে ইন্টারনেট সেবা ও কেবল নেটওয়ার্ক সংযোগ বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছিল। কিন্তু টেলিযোগাযোগ মন্ত্রীর সঙ্গে ফলপ্রসূ বৈঠকের পর ধর্মঘট কর্মসূচি স্থগিত করেছে আইএসপিএবি ও কোয়াব।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বারের সঙ্গে আজ সন্ধ্যায় ফলপ্রসূ আলোচনার পর সংগঠন দুটি তাদের কর্মসূচি স্থগিত করার এই ঘোষণা দেয়।

ধর্মঘট প্রত্যাহারের লক্ষ্যে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার জরুরি এক জুম বৈঠকে সংগঠন দুটির সঙ্গে মিলিত হন। বৈঠকে আইএসপিএবির প্রতিনিধিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি আমিনুল হাকিম ও কোয়াবের প্রতিনিধিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি আনোয়ার পারভেজ। সরকারের আহ্বানে ধর্মঘট প্রত্যাহার করায় মন্ত্রী উভয় সংগঠনকে ধন্যবাদ জানান।