বাংলাদেশের পাসপোর্টের অবস্থান এবার ৯৮তম

বৈশ্বিক পাসপোর্ট সূচকে এবার বাংলাদেশের অবস্থান ৯৮তম। গত বছর বাংলাদেশের অবস্থান ৯৭তম ছিল। এ তালিকার শীর্ষে ও সর্বনিম্নে রয়েছে এশিয়ার দুই দেশ।

এবার সবচেয়ে শক্তিশালী পাসপোর্টের দেশ জাপান এবং সবচেয়ে দুর্বল দেশ আফগানিস্তান। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের পাসপোর্টের মূল্যায়ন করে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক নাগরিকত্ব ও পরিকল্পনা বিষয়ক ফার্ম হেনলি অ্যান্ড পার্টনারস এবং ইন্টারন্যাশনাল এয়ার ট্রান্সপোর্ট অ্যাসোসিয়েশনের (আইএটিএ) তথ্য ব্যবহার করে তৈরি করা হয় সূচক।

বাংলাদেশের পাসপোর্ট দিয়ে বিনা ভিসায় বিশ্বের ৪১টি দেশ ভ্রমণ করা যায়। বাংলাদেশের সঙ্গে এ সুবিধা পাচ্ছে কঙ্গো, ইরিত্রিয়া ও ইরান। গত বছরও ৪১টি দেশ ভ্রমণের সুবিধায় ছিল বাংলাদেশ। সূচকে পিছিয়ে গেলেও বাংলাদেশকে ভিসা ফ্রি অর্থাৎ শুধু পাসপোর্টে ভ্রমণ সুবিধা দেওয়া দেশের সংখ্যা একই রয়েছে।

৮৪টি দেশে ভ্রমণ সুবিধা নিয়ে বৈশ্বিক পাসপোর্ট সূচকে ৫৮তম তম অবস্থানে রয়েছে প্রতিবেশী ভারত। ৩২টি দেশ ভ্রমণের সুবিধা নিয়ে তালিকায় ১০৪তম অবস্থানে আছে পাকিস্তান। শ্রীলঙ্কা ৪২টি দেশে ভ্রমণ সুবিধা পাচ্ছে।

নেপাল রয়েছে ১০১তম এবং মিয়ানমার ৯৪তম অবস্থানে। দেশটির ভ্রমণের অধিকার আছে ৪৭ রাষ্ট্রে।

জাপানের পাসপোর্ট দিয়ে ১৯১টি দেশে ভিসা ছাড়া ভ্রমণ করা যায়। এছাড়া তালিকায় দ্বিতীয় সিঙ্গাপুরের পাসপোর্ট দিয়ে ১৯০টি দেশ ভ্রমণ করা যায়। তৃতীয় অবস্থানে আছে যৌথভাবে জার্মানি ও দক্ষিণ কোরিয়া।