বিশ্বকাপেও ভালো করব আমরা: মোসাদ্দেক


গতকাল রাতে ইতিহাস গড়ল টাইগাররা। প্রথম ত্রিদেশীয় সিরিজ শিরোপার স্বাদ পেল বাংলাদেশ।

বৃষ্টি বিঘ্নিত ম্যাচে ২৪ ওভারে ২১০ রানের টার্গেট, একটু কষ্টসাধ্যই মনে হচ্ছিল দেশের ক্রিকেটপ্রেমীদের কাছে।

তবে ব্যাট হাতে নেমে টাইগারদের টি-টোয়েন্টি মেজাজে খেলাই জানান দিল লক্ষ্যে পৌঁছতে আত্মবিশ্বাসী তামিম-সৌম্যরা।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে মাত্র ২২.৫ ওভারে ২১০ রান তাড়া করে অবিস্মরণীয় এক জয়ে ত্রিদেশীয় সিরিজ শেষ করে টাইগাররা।

জয়ের নায়ক সাকিবের জায়গায় নামা মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত।

২০ বলে অর্ধশত করে সহজ জয় এনে দেন তিনি। বাংলাদেশের পক্ষে দ্রুততম ফিফটির রেকর্ডটিও এখন তার।

তবে ক্রিকেটবিশ্লেষকদের মতে, ওপেনিংয়ে সৌম্য সরকার যদি এমন ঝড়ো ইনিংস না খেলতেন তাহলে হয় সমীকরণটা পাল্টে যেতে পারত।

যে কারণে জয়ের নেপথ্য নায়ক হিসাবে সৌম্য সরকারকেই স্যালুট জানাচ্ছেন তারা। তবে বিশ্লেষকরা জানিয়েছেন, ম্যাচের শেষ দিকে ফাবিয়ান অ্যালেনের একটি ওভারই জয়ের পথ সুগম করে দেয়।

সেই ওভারে মোসাদ্দেকের ব্যাট থেকে আসে ২৫ টি রান। ৭ বল আগেই সহজ জয় ছিনিয়ে নেন ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের ভালো পারফর্ম করা এ তরুণ তুর্কি।

দেশের মাটির সেরাটা সুযোগ পেয়েই ঝেড়ে দিলেন বিদেশের মাটিতে। অপরাজিত ছিলেন ২৪ বলে ৫২ রান করে।

এমন দুর্দান্ত জয়ের পর ম্যাচসেরার পুরষ্কারটা মোসাদ্দেকেরই হতে পারে।

সংবাদমাধ্যমে নিজের উচ্ছ্বাস প্রকাশে এই ডানহাতি অফস্পিনিং অলরাউন্ডার বলেন, ‘প্রথম একটা শিরোপা জিতেছি, এটা অনেক ভালো লাগার বিষয়। সেটাও আবার বিদেশের মাটিতে, ভালো একটা দলের বিপক্ষে। সবচেয়ে বড় কথা, বিশ্বকাপের আগে ভালো একটা প্রস্তুতি হলো। এ সিরিজ থেকে আমরা অনেক বড় একটা আত্মবিশ্বাস নিয়ে বিশ্বকাপের মাঠে নামব।

এ সিরিজ থেকে পাওয়া আত্মবিশ্বাস কাজে লাগিয়ে বিশ্বকাপেও বাংলাদেশ ভালো করবে বলে বিশ্বাস করেন মোসাদ্দেক।

তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি, আমাদের ব্যাটিং ও বোলিং ইউনিট যা আছে, এখানকার মতো খেলতে পারলে বিশ্বকাপেও ভালো কিছু করতে পারব। আমরা খুব ভালো আত্মবিশ্বাস নিয়ে বিশ্বকাপে যাচ্ছি।’

দলগত পারফর্মেন্সের কথা জানিয়ে বিশ্বকাপে ব্যক্তিগত ভূমিকা নিয়েও কথা বলেন এই ডানহাতি অফস্পিনিং অলরাউন্ডার।

তিনি বলেন, ‘আমি সাধারণত নিচের দিকে খেলি। আমরা নিচের দিকে এভাবে খেলতে পারলে দলকে জেতাতে সাহায্য করবে। আমার ব্যক্তিগত লক্ষ্যও সেটিই যে সুযোগ পেলে এমন কিছু করব যা দলের কাজে লাগবে।’