বিশ্বকাপ সুপার লিগ কাল থেকে

তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে মুখোমুখি হচ্ছে স্বাগতিক ইংল্যান্ড ও আয়ারল্যান্ড। এই সিরিজ দিয়ে শুরু হচ্ছে ওয়ানডে বিশ্বকাপের সুপার লিগ। আর এই লিগ হচ্ছে ২০২৩ ওয়ানডে বিশ্বকাপের বাছাই পর্ব। সাউথাম্পটনে ইংল্যান্ড ও আয়ারল্যান্ডের মধ্যকার প্রথম ওয়ানডে শুরু হবে আগামীকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টায়।

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের কারণে গেল মার্চ থেকে বিশ্ব ক্রীড়াঙ্গন থমকে ছিল। তবে গত গত ৮ জুলাই থেকে আবার মাঠে ফিরেছে ক্রিকেট। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ আয়োজন করে স্বাগতিক ইংল্যান্ড। সাউথাম্পটনে অনুষ্ঠিত হয় সিরিজের প্রথম টেস্ট। এরপর ম্যানচেস্টারে আরো দুটি টেস্ট খেলে দুদল। তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ ২-১ ব্যবধানে জিতে নেয় ইংল্যান্ড।

১১৬ দিন পর টেস্ট ক্রিকেট দিয়ে মাঠে ফিরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট। এবার ফিরতে যাচ্ছে ওয়ানডে। নিজেদের মাঠে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে ওয়ানডে ক্রিকেটও কাল মাঠে ফিরছে। তবে এই সিরিজের গুরুত্বটা অন্য দিক থেকে। এই সিরিজ দিয়ে চালু হচ্ছে আইসিসি ওয়ানডে বিশ্বাকাপের সুপার লিগ। ২০২৩ সালে ভারতে অনুষ্ঠেয় ওয়ানডে বিশ্বকাপকে সামনে রেখেই এই সুপার লিগের নিয়ম চালু করেছে আইসিসি।

এই লিগে খেলবে ১৩টি দল। ১২টি টেস্ট খেলুড়ে দেশের সঙ্গে আইসিসি ওয়ার্ল্ড ক্রিকেট লিগের বিজয়ী দল নেদারল্যান্ডস। ২০২৩ বিশ্বকাপের আগে প্রতিটি দল আটটি করে সিরিজ খেলবে। চারটি নিজেদের মাঠে, চারটি প্রতিপক্ষের মাঠে। প্রতিটি সিরিজ হবে তিন ম্যাচের। এই লিগের শীর্ষ সাতটি দল সরাসরি অংশ নেবে ২০২৩ সালের বিশ্বকাপে।

তবে স্বাগতিক হওয়ার সুবাদে বিশ্বকাপে সরাসরি খেলবে ভারত। আর সরাসরি বিশ্বকাপে উঠতে না পারা পাঁচ দলসহ সহযোগী পাঁচ সদস্য দল আবার বাছাইপর্বে খলবে। সেখান থেকে মূল টুর্নামেন্টে সুযোগ পাবে দুই দল। মোট ১০ দলের অংশগ্রহণে হবে ২০২৩ ওয়ানডে বিশ্বকাপ।