ভারতে ট্রেন লাইনচ্যুত হয়ে নিহত ৭


ভারতে যাত্রীবাহী ট্রেন লাইনচ্যুত হয়ে সাতজনের প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে। গুরুতর আহত হয়েছেন অন্তত ৪৫ জন। আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে এবং নিহতের সংখ্যা বাড়তে পারে বলে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

ভারতের রেলওয়ের উত্তরাঞ্চলের বিভাগীয় ব্যবস্থাপক সতীশ কুমার জানান, বুধবার ভোর ৬টা ৫ মিনিটে ভারতের উত্তর প্রদেশ রাজ্যের রায়বেরিলির কাছে দিল্লিগামী নিউ ফারাক্কা এক্সপ্রেস ট্রেনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। উত্তর প্রদেশের রায়বেরিলির হরচন্দ্রপুরের কাছে পশ্চিমবঙ্গের মালদহ টাউন থেকে নিউ ফারাক্কা এক্সপ্রেস দিল্লি যাওয়ার পথে ট্রেনটির ইঞ্জিনসহ সাতটি বগি লাইনচ্যুত হয়ে যায়। দুর্ঘটনার পর তৎক্ষণাৎ স্থানীয় মানুষজন ও হরচন্দ্রপুর স্টেশনের রেলকর্মীরা উদ্ধারকাজে হাত দেন।

এদিকে, দুর্ঘটনার খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে পৌঁছান উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। দুর্ঘটনায় নিহতদের পরিবারকে দুই লাখ রুপি এবং গুরুতর আহতদের পরিবারকে ৫০ হাজার রুপি ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন তিনি।

উদ্ধারকাজে নেমেছেন ভারতের জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর সদস্যরা। নিকটবর্তী লক্ষ্ণৌ ও বারানসি থেকে বিপর্যয় মোকাবিলা দপ্তরের কর্মীরাও হাজির হয়েছেন। ঘটনাস্থলের উদ্দেশে রওনা দিয়েছেন ভারতের কেন্দ্রীয় রেলমন্ত্রী পিযুষ গোয়ালা। এ ছাড়া ভারতীয় রেলের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছেছেন।

দুর্ঘটনার পর বিভিন্ন স্টেশনে দাঁড়িয়ে রয়েছে একাধিক আপ ও ডাউন ট্রেন। সিগন্যাল সমস্যা ও কুয়াশার কারণেই এ দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে ভারতের রেল কর্তৃপক্ষ।

রেল সূত্র জানায়, যাত্রীবাহী ট্রেনটি এদিন ফারাক্কা থেকে রায়বেরিলি হয়ে দিল্লি যাচ্ছিল। রায়বেরিলির হরচন্দ্রপুর স্টেশন পার হয়ে ৫০ মিটার এগোলেই ঘন কুয়াশার মুখে পড়ে ট্রেনটির কয়েকটি বগি লাইনচ্যুত হয়। দুর্ঘটনায় আক্রান্ত যাত্রীদের পরিবারের জরুরি সহায়তায় একটি হেল্প লাইন নম্বর চালু করা হয়েছে।