রস টেইলরের সঙ্গে পুরনো বিবাদের কথা ফাঁস করলেন ম্যাককালাম

সতীর্থ রস টেইলরের সাথে ভালো বন্ধুত্ব না হলেও, তার প্রতি শ্রদ্ধা-ভালোবাসা রয়েছে বলে জানালেন নিউজিল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক ব্রেন্ডন ম্যাককালাম। ২০১১ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপে ব্যর্থতার পর নিউজিলল্যান্ডের অধিনায়কত্ব ছাড়েন স্পিনার ড্যানিয়েল ভেট্টোরি। তার পরিবর্তে নিউজিল্যান্ডের অধিনায়ক হন ম্যাককালাম। এরপর থেকে টেইলরের সাথে সর্ম্পকে ফাটল ধরে তার।

ভেট্টোরির পর ম্যাককালামকে অধিনায়কত্ব করতে মূখ্য ভূমিকাই রাখেন টেইলর। এরপরই টেইলর-ম্যাককালামের সর্ম্পকে ফাঁটল ধরে জানিয়ে ম্যাককালাম বলেন, ‘এটি টেইলরের সাথে আমার বন্ধুত্ব ও সর্ম্পকে চাপ সৃষ্টি করে। বয়স ভিত্তিক ক্রিকেটে টেইলরের সাথে আমার অনেক উন্নতি রয়েছে। আমি যখন অনূর্ধ্ব-১৯ দলের অধিনায়ক ছিলাম, তখন টেইলর আমার সহ-অধিনায়ক ছিলেন । আমরা সব সময়ই ভালো করেছি।’

স্কাই স্পোটর্সকে ম্যাককালাম আরও বলেন, ‘দলের প্রয়োজনে আমাদের একটি সাক্ষাৎকারে যেতে হয়েছিল। একটি প্যানেলের কাছে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেটের ভবিষ্যতের চিত্র তুলে ধরার বিষয় ছিল। আমরা কি করব, তা আমরা জানতাম না। আমার উপায় থাকলে, আমি বলতাম- প্রক্রিয়াটিতে আমি যেতে চাচ্ছি না। তোমরা টেইলরকে অধিনায়ক করো এবং তারপর আমরা দেখবো সেখানে কি ঘটে। নিউজিল্যান্ডের ক্রিকেটে একটি খারাপ সময় যাচ্ছিল। আমাকে ও টেইলরকে চাপ দেয়া হয়েছিল। তাই শেষ পর্যন্ত টেইলরের কাছ থেকে আমাকে দায়িত্ব নিতে হয়েছে।’

২০১২ সালে শ্রীলঙ্কা টেস্ট সিরিজে ১-১ ড্রয়ের পর টেইলরের সাথে সমস্যা তৈরি হয়েছিল। এরপর দক্ষিণ আফ্রিকায়, ওয়েস্ট ইন্ডিজ-ভারতের কাছে হারের ফলে র‌্যাংকিংএ নিউজিল্যান্ডের ক্রিকেটের পতন ঘটে। র‌্যাংকিংএ নবমস্থানে নেমে যায় নিউজিল্যান্ড। ওই অবস্থায় টেইলরকে টেস্ট দলের অধিনায়ক থাকার সুযোগ দেয়া হয়েছিল এবং ম্যাককালামকে ওয়ানডে দলের দায়িত্ব দেয়া হলে তা প্রত্যাখান করেন তিনি।

ম্যাককালাম জানান, ‘আমাকে জিজ্ঞাসা করা হয়েছিল, আমি তিন ফরম্যাটের অধিনায়কত্ব নিতে চাই কি-না। প্রথমদিকে, আমি বলেছিলাম আমাকে লম্বা সময় নিয়ে ভালভাবে আমাকে চিন্তা করতে হবে। আমি জানতাম এটি বড় ধরনের বির্তকিত সিদ্বান্ত হবে। আমি এও জানতাম, নিউজিল্যান্ড ক্রিকেটে বড় ধরনের বিপত্তি আসতে পারে এবং খেলোয়াড় হিসেবেও। টেইলর টেস্ট দলের অধিনায়কত্ব থেকে অব্যাহতি দেয়। আমি জানতাম না, তখন কি হয়েছিল। তখন অনেক বির্তক হয়েছিল। ঐ সময় থেকেই নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট এগিয়ে গেছে।’

২০১২ সালের ডিসেম্বরে নিউজিল্যান্ডের তিন ফরম্যাটের অধিনায়ক হন ম্যাককালাম। ২০১৬ সালের অবসরের আগ পর্যন্ত অধিনায়কত্ব ধরে রেখেছিলেন। এরপর কেন উইলিয়ামসন দলের অধিনায়ক হন। ম্যাককালাম জানান, টেইলর ও তার মধ্যে এখনো ভালো বন্ধুত্ব নেই কিন্তু তার প্রতি অনেক শ্রদ্ধা রয়েছে। তিনি বলেন, ‘আমরা ভালো বন্ধু নই। তার প্রতি আমার শ্রদ্ধা রয়েছে। তার একটি সুন্দর পরিবার ও দুর্দান্ত ক্যারিয়ার রয়েছে। সে ব্যক্তিগত জীবনে শান্তিতে ও ভালো আছেন। সে সত্যিই ভালোও করছে।’