রিয়ালকে নিয়ে রোনালদোর আবেগঘন চিঠি


রিয়ালের সঙ্গে দীর্ঘ ৯ বছরের সম্পর্ক ছিন্ন করে স্পেন থেকে ইতালিতে পাড়ি জমাচ্ছেন রোনালদো। আগামী মৌসুমে রিয়াল নয়, জুভেন্টাসের জার্সি গায়ে দেখা যাবে ৩৩ বছর বয়সী পর্তুগিজ এই তারকাকে। ১০৫ মিলিয়ন ইউরোতে মাদ্রিদ ছেড়ে ইতালির ক্লাবটিতে যোগ দিয়েছেন তিনি। এরইমধ্যে ভালোবাসামাখা টুইট করেছেন সার্জিও রামোসে। ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোও আবেগী এক খোলা চিঠিতে বিদায় জানিয়েছেন।

রোনালদো চিঠিতে লিখেছেন-

‘রিয়াল মাদ্রিদ এবং মাদ্রিদ শহরে কাটানো বছরগুলো সম্ভবত আমার জীবনের সবচেয়ে আনন্দের সময়। এই ক্লাব, সমর্থক ও এই শহরের প্রতি আমার অশেষ কৃতজ্ঞতা। সবার কাছ থেকে যে ভালোবাসা ও আবেগ পেয়েছি তার জন্য আমি শুধুই ধন্যবাদ দিতে পারি।’

‘যাই হোক, আমি বিশ্বাস করি জীবনের নতুন পর্যায়ে যাওয়ার সময় হয়েছে। এবং এ কারণে আমি ক্লাবকে এ ট্রান্সফারের অনুমতি দেওয়ার জন্য বলেছিলাম। সবার প্রতি আমার অনুরোধ, বিশেষ করে ক্লাবের সমর্থকদের প্রতি, দয়া করে আমাকে বোঝার চেষ্টা করুন।’

‘৯টা বছর এখানে চমৎকার কেটেছে। এই ৯ বছর অতুলনীয় ছিল। আমার জন্য রোমাঞ্চকর সময় ছিল এটা। কিন্তু রিয়াল মাদ্রিদের প্রচণ্ড প্রত্যাশা থাকায় সময়টা কঠিনও ছিল। এ ব্যাপারে আমি সব সময়ই সচেতন ছিলাম। এখানে অসাধারণ ফুটবল খেলা যতটা উপভোগ করেছি, কখনোই ভুলব না।’

‘মাঠে ও ড্রেসিংরুমে অসাধারণ সব সঙ্গী পেয়েছি। সবসময় সমর্থকের অবিশ্বাস্য আবেগ অনুভব করতাম। এবং সবাই মিলে আমরা টানা তিনটি চ্যাম্পিয়নস লিগ জিতেছি এবং পাঁচ বছরে চারটি ট্রফি জিতেছি। এছাড়া, ব্যক্তিগতভাবে চারটি ব্যালন ডি’অর ও তিনটি গোল্ডেন বুট জিতেছি। এসবই আমার ক্যারিয়ারে যোগ হয়েছে এই বিশাল ও অসাধারণ এক ক্লাবে খেলেছি বলেই।’

‘রিয়াল মাদ্রিদ আমার ও আমার পরিবারের হৃদয়ে স্থান করে নিয়েছে। আর এ কারণেই অন্য যে কোনো সময়ের চেয়েও বেশি করে ক্লাবকে, সভাপতিকে, বোর্ডকে, আমার সতীর্থদের, সব কোচদের, ফিজিও এবং ক্লাবের অসাধারণ সব কর্মীদেরও ধন্যবাদ জানাই। যারা অক্লান্তভাবে সবকিছু সচল রাখছেন, ক্ষুদ্রাতিক্ষুদ্র বিষয়েও নজর রাখছেন।’

‘সব সমর্থক ও স্প্যানিশ ফুটবলকে আবারও অসংখ্য ধন্যবাদ। এ ৯ বছরে আমি বিশ্বের সেরা কিছু খেলোয়াড়ের বিপক্ষেও খেলেছি। তাদের প্রতি আমার সম্মান ও শ্রদ্ধা জানাচ্ছি।’

‘আমি অনেক ভেবে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছি যে, জীবনে নতুন কিছু শুরু করার সময় এসেছে। আমি এ জার্সি ছেড়ে যাচ্ছি। কিন্তু যেখানেই থাকি না কেন এই ক্লাব ও সান্তিয়াগো বার্নাব্যু আমার অংশ হয়ে থাকবে।’