রোহিঙ্গাদের জন্য বিএনপির ত্রাণ কার্যক্রমে ‘বাধা’

রোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়াতে দলের কেন্দ্রীয় রিলিফ টিমকে উখিয়া যেতে দেওয়া হচ্ছে না বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

এ ঘটনায় সরকারের ‘মুখোশ’ উন্মোচিত হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন তিনি।

বুধবার বিকেলে রাজধানীতে দলের এক আলোচনা সভায় বিএনপি মহাসচিব এই অভিযোগ করে এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানান।

রমনার ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউশন মিলনায়তনে বিএনপির উদ্যোগে দলের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ১০ম কারামুক্ত দিবস উপলক্ষে এই আলোচনা সভা হয়।

তিনি বলেন, ‘কক্সবাজারে আমাদের যে কেন্দ্রীয় রিলিফ টিম ২০টি ট্রাক নিয়ে গিয়েছে জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসের নেতৃত্বে, তাদের উখিয়াতে প্রশাসন যেতে দিচ্ছে না, পুলিশ ট্রাক আটকিয়ে দিয়েছে।’

‘শুধু তাই নয়, কক্সবাজারে আমাদের বিএনপি অফিস পুলিশ ঘিরে রেখেছে। আমাদের শীর্ষস্থানীয় নেতারা অফিস ঘরে আটকা পড়ে আছেন। আমরা এসব ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি।’

বিএনপি মহাসচিব অবিলম্বে রিলিফ টিমকে রোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য সেখানে যেতে প্রশাসনের কাছে জোর দাবি জানান।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘এ ঘটনার মধ্য দিয়ে এই সরকারের মুখোশ উন্মোচিত হয়েছে। তারা যে বলছেন তারা রোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়িয়েছেন, এটা শুধু আইওয়াশ বলে প্রমাণিত হচ্ছে। আসলে তারা রোহিঙ্গাদের পক্ষে দাঁড়াননি। যদি দাঁড়াতেন তাহলে তারা আজকে বিএনপির রিলিফ টিমকে উখিয়ায় অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়াতে বাধা দিতেন না।’

তিনি বলেন, এখানেই প্রমাণিত হয়েছে, তারা (সরকার) রোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়াতে চান না বলেই আজকে এই জঘন্য কাজটি করেছেন।

মঙ্গলবার ঢাকা থেকে মির্জা আব্বাসের নেতৃত্বে দলের উচ্চ ক্ষমতার প্রতিনিধি দল কক্সবাজার যান। এই প্রতিনিধি দলে আছেন নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান অধ্যাপক এজেডএম জাহিদ হোসেনসহ কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ।