শিগগির আসছে ‘অ্যান্ড্রয়েড টেন’, বদলে যাবে স্মার্টফোন


অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের (ওএস) সর্বশেষ সংস্করণ ‘অ্যান্ড্রয়েড কিউ’-এর আনুষ্ঠানিক নাম ঘোষণা করেছে গুগল। এত দিন অ্যান্ড্রয়েড সংস্করণের নাম মিষ্টি দ্রব্যের নামানুসারে রাখা হতো। এবারই প্রথম সে প্রথা ভেঙে সরাসরি সংখ্যা ব্যবহার করে ‘অ্যান্ড্রয়েড কিউ’-এর নাম রাখা হলো ‘অ্যান্ড্রয়েড ১০’ বা ‘অ্যান্ড্রয়েড টেন’।

এরই মধ্যে নতুন এই ওএসের কয়েক দফা ডেভেলপার ও পাবলিক বেটা সংস্করণ বের হয়েছে। সেসব সংস্করণ থেকে জানা গেছে এই ওএসের বেশ কিছু ফিচার। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম নিউজ১৮-এর প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

জেনে নিন ‘অ্যান্ড্রয়েড ১০’-এ কী কী নতুন ফিচার থাকছে—

ডার্ক মোড : এই ফিচারটি প্রথমে পাবলিক বেটা ভার্সনে রিলিজ করা হয়েছিল, পরে গুগলের ডেভেলপার সম্মেলনে ফিচারটি থাকছে বলে নিশ্চিত করা হয়। ফোনের সেটিংসে ব্যাটারি ট্যাব থেকে ডার্ক থিম চালু করা যাবে। গুগল গত কয়েক মাসে তাদের বেশ কিছু অ্যাপে এ মোড সংযুক্ত করেছে।

লোকেশন : অ্যান্ড্রয়েড টেন সংস্করণে ব্যক্তিগত সুরক্ষার বিষয়টি গুরুত্ব দিচ্ছে গুগল। অ্যাপে লোকেশন অ্যাকসেস (ফোন ব্যবহারকারী কোথায় অবস্থান করছেন) যেন ব্যবহারকারীরা নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন, সে বিষয়টি যুক্ত করা হচ্ছে। এ ছাড়া লোকেশন সেবাটি চালু বা বন্ধ করার সুবিধার পাশাপাশি কোনো অ্যাপে অনুমতি ছাড়া লোকেশন সেবা চালু হবে না, সেটাও অ্যান্ড্রয়েডের নতুন সংস্করণে নিশ্চিত করা হয়েছে।

ফাস্ট শেয়ার : ‘অ্যান্ড্রয়েড ১০’-এ নতুন একটি ফিচার নিয়ে আসছে গুগল। এই ফিচারের সাহায্যে ব্যবহারকারীরা খুব সহজেই ফাইল আদানপ্রদান করতে পারবেন। এই ফিচারটির নাম দেওয়া হয়েছে ‘ফাস্ট শেয়ার’।

ব্যাটারি ইনডিকেটর : এ মুহূর্তে বাজারে যত স্মার্টফোন আছে, সেগুলোতে ফোনে কতটুকু ব্যাটারি আছে, সেটা শতাংশে (%) দেখায়। কিন্তু ‘অ্যান্ড্রয়েড ১০’-এ আপনি জানতে পারবেন আপনার ফোন কতক্ষণ চলবে।

রঙিন থিম : ইউজার ইন্টারফেসে (ইউআই) পরিবর্তন আনার পাশাপাশি বিভিন্ন রঙের থিম ব্যবহার করার সুযোগ থাকছে অ্যান্ড্রয়েড টেনে।

ওয়াই-ফাই : ব্যবহারকারীকে প্রতিবার ওয়াই-ফাই পাসওয়ার্ড টাইপ করতে হবে না। কিউআর কোড ব্যবহার করেই ওয়াই-ফাই ব্যবহার করা যাবে। এতে ওয়াই-ফাই সেবাদাতাকে বারবার পাসওয়ার্ড জানানোর প্রয়োজন পড়বে না।

থার্ড পার্টি ক্যামেরা অ্যাপ : অ্যান্ড্রয়েডের নতুন সংস্করণে থার্ড পার্টির অ্যাপ ব্যবহার করে উন্নতমানের ছবি তোলার সুযোগ থাকবে। অ্যান্ড্রয়েড টেনে ডেভেলপাররা ছবির মান নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন।

অডিও-ভিডিও ফরম্যাট : ‘অ্যান্ড্রয়েড টেন’ আরো বেশি ভিডিও কোডেক সাপোর্ট করবে। এতে ব্যবহারকারীরা তাঁদের স্মার্টফোনে বিভিন্ন ফরম্যাটের ভিডিও ও অডিও শুনতে পারবেন।

অ্যালার্ট অপশন : এখন কোনো অ্যাপ সহজেই বন্ধ করতে পারবেন ব্যবহারকারীরা। অ্যাপ নোটিফিকেশন ব্লক করার সুবিধা পাবেন ব্যবহারকারীরা। এ ছাড়া নোটিফিকেশন সাইলেন্ট করার সুবিধাও থাকবে।

ডেস্কটপ মোড : অ্যান্ড্রয়েড টেনে থাকবে বিশেষ ডেস্কটপ মোড, যাতে করে হ্যান্ডসেটকে সহজে ডেস্কটপের সঙ্গে যুক্ত করা যাবে। এতে কাজকর্মে আরো বেশি গতি বাড়বে।

ফোল্ডেবল ফোন ইউআই : অ্যান্ড্রয়েড টেনে ভাঁজ করা স্ক্রিনের জন্য বিশেষ ইউআই থাকবে। গত বছরই গুগল এ তথ্য প্রকাশ করেছিল। নতুন এই ওএস সংস্করণ ইউজার ইন্টারফেসে বিভিন্ন উপাদান ও নকশাকে ডিসপ্লের হার্ডওয়্যার অনুযায়ী বদলে ফেলতে পারবে।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দি ইনডিপেনডেন্টের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ৩ সেপ্টেম্বর রিলিজ হতে পারে ‘অ্যান্ড্রয়েড ১০’।