সংঘাত এড়াতেই পার্লামেন্ট ভেঙে নির্বাচন : সিরিসেনা


শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট মাইথ্রিপালা সিরিসেনা বলেছেন, ‘সংঘাত এড়াতেই পার্লামেন্ট ভেঙে দিয়ে নির্বাচনের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।’ তিনি জানান, রাজনীতিবিদদের সঙ্গে কথা বলেই তিনি এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

সংসদ ভেঙে দেওয়ার ফলে দুই পক্ষের সংঘাত এড়িয়ে দেশে রক্তপাত বন্ধ করা গেছে বলে উল্লেখ করেন দেশটির প্রেসিডেন্ট।

এদিকে প্রেসিডেন্টের পার্লামেন্ট ভেঙে দেওয়ার সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আজ বেশ কয়েকটি রাজনৈতিক দল শ্রীলঙ্কার সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করবে বলে জানিয়েছে। দুই সপ্তাহ আগে প্রেসিডেন্ট সিরিসেনা প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহেকে পদচ্যুত করার পর থেকে রাজনৈতিক টানাপড়েন চলছে দেশটিতে।

জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস এক বিবৃতিতে দেশটির চলমান সংকট নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। এ ছাড়া মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় ইউনিয়নসহ পশ্চিমা দেশগুলো সাংবিধানিক পন্থায় সংকটের সমাধানের পথ বেছে নেওয়ার পরামর্শ দেয়। তবে গুরুত্বপূর্ণ দুই প্রতিবেশী দেশ ভারত ও চীন এ পরিস্থিতিকে গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করছে।

প্রেসিডেন্ট সিরিসেনা প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহেকে বরখাস্ত করে নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে সাবেক প্রেসিডেন্ট চীনপন্থী হিসেবে পরিচিত প্রভাবশালী নেতা মাহিন্দা রাজাপক্ষেকে নিযুক্ত করলে শ্রীলঙ্কায় সাংবিধানিক সংকটের সূত্রপাত হয়।

প্রধানমন্ত্রীকে বরখাস্তের পর পার্লামেন্টও আগামী ১৬ নভেম্বর পর্যন্ত স্থগিত করেন সিরিসেনা। ভারতপন্থী হিসেবে পরিচিত প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহের দেশটির সংসদে সংখ্যাগরিষ্ঠতা থাকায় তাঁকে আটকাতেই সংসদ স্থগিত করেন প্রেসিডেন্ট সিরিসেনা। এবার পার্লামেন্টের স্থগিতাদেশের মেয়াদ বাড়িয়ে নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করলেন তিনি।

বিক্রমাসিংহে অবশ্য নিজেকে এখনো প্রধানমন্ত্রী দাবি করে আসছেন এবং বরখাস্তের আদেশের পর সংসদ অধিবেশন আহ্বান করতে স্পিকারের প্রতি আবেদন জানান। তাঁর দাবি, একমাত্র পার্লামেন্টই তাঁকে ক্ষমতাচ্যুত করার অধিকার রাখে। তিনি সংসদে সংখ্যাগরিষ্ঠতার কথা বলে প্রধানমন্ত্রীর রাষ্ট্রীয় বাসভবনও নিজের দখলে রেখেছেন।

দেশটির আইন বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ২০২০ সালের শুরুর দিকে সাড়ে চার বছর শেষ করে বর্তমান সংসদের মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা। এর আগে শুধু গণভোট বা দুই-তৃতীয়াংশ সংসদ সদস্যের মতের ভিত্তিতে সংসদ স্থগিত বা ভেঙে দেওয়া যেতে পারে, অন্যথায় নয়। তবে সিরিসেনার দলীয় আইনজীবীরা জানান, এমনটি করার সুযোগ তাঁর রয়েছে।