সরকার দৃশ্যমান উন্নয়নের রাজনীতিতে বিশ্বাসী : ভূমিমন্ত্রী


ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ বলেছেন, সরকারের রূপকল্প বাস্তবায়নে সকলকে দক্ষতার সাথে এক বছরের নির্ধারিত কাজের লক্ষ্যমাত্রা যথাসময়ের মধ্যেই সম্পাদন করতে হবে। সরকারের রূপকল্প বাস্তবায়নের মানদণ্ড হলো বার্ষিক কর্মসম্পাদনা চুক্তি (এপিএ)। সরকারের রূপকল্প বাস্তবায়ন শুধুমাত্র চুক্তি সম্পাদনেই শেষ নয়, এ কর্মযজ্ঞ তখনই স্বার্থক হবে, যখন সরকারের ইশতেহার বা গৃহীত রূপকল্প ইতিবাচক হিসেবে দৃশ্যমান হবে।

আজ সোমবার ভূমি মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে ভূমি মন্ত্রণালয় ও এর অধীনস্থ অধিদপ্তর, বোর্ড ও সংস্থার মধ্যে বার্ষিক কর্মসম্পাদনা চুক্তি (এপিএ) স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ভূমি মন্ত্রণালয়ের অধীনস্থ অধিদপ্তর, সংস্থা ও বোর্ড প্রধানদের সাথে এপিএ চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন ভূমি সচিব আবদুল জলিল।

শামসুর রহমান শরীফ বলেন, কাজের লক্ষ্যমাত্রা অনুযায়ী সঠিক সময়ের মধ্যে স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা ও দায়িত্বশীলতার মাধ্যমে কাজ সম্পাদন করতে হবে। দৃশ্যমান উন্নয়ন সরকারের ভাবমূর্তিকে তুলে ধরে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

ভূমিমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করে গিয়েছিলেন। কিন্তু জাতি পিতা বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মাধ্যমে ঘাতকরা তার স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার পথকে স্তব্ধ করে দিয়েছিল।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ দেশের দৃশ্যমান উন্নয়নের রাজনীতিতে বিশ্বাসী। মানুষের মৌলিক অধিকার নিশ্চিত করার নিয়ন্ত্রণ, প্রতিটি নাগরিককে স্বাধীন জাতি হিসেবে সুখে শান্তিতে বসবাস করার নিরাপত্তা সবকিছুই সরকারের রাজনীতির দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়।

মন্ত্রী সরকারের উন্নয়নের ধারাকে অব্যাহত রাখতে স্ব স্ব দায়িত্ব স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার মাধ্যমে সুষ্ঠুভাবে যথাসময়ে সম্পাদনের জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন।