সর্ববৃহৎ শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ দেখাল হংকংয়ের আন্দোলনকারীরা


চীনের রক্তচক্ষু উপেক্ষা করে এবার সর্ববৃহৎ শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছে হংকংয়েরে সরকারবিরোধী আন্দোলনকারীরা। ১০ সপ্তাহ ধরে চলা বিক্ষোভে বহুবার পুলিশ ও আন্দোলনকারীদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। এতে একপর্যায়ে হংকংয়ের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরটিও বন্ধ হয়ে যায়। তবে এ সপ্তাহের বিক্ষোভ সমাবেশটি শান্তিপূর্ণভাবেই শেষ হয়। সম্প্রতি হংকংয়ের পার্শ্ববর্তী সেনজেন প্রদেশে বিপুল পরিমাণ সাজোয়া যান ভিড়িয়েছে এবং নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের উপস্থিতি বাড়িয়েছে চীন।

বিক্ষোভের নেতৃত্বে থাকা ‘সিভিল হিউম্যান রাইটস ফ্রন্ট’ হংকংয়ের রাস্তায় বিক্ষোভ করতে চাইলে তাদেরকে অনুমতি দেওয়া হয়নি। শেষমেশ তাঁরা হংকংয়ের ভিক্টোরিয়া পার্কে জড়ো হন এবং পরে রাজপথের দিকে এগিয়ে যান।

যেকোনো সন্দেহভাজন অপরাধীকে চীন সরকারের হাতে তুলে দেওয়ার একটি প্রত্যর্পণ বিল নিয়ে গত এপ্রিলে হংকংয়ে বিক্ষোভ শুরু হয়। এ বিল বাস্তবায়ন হলে হংকংয়ের আইনি স্বাধীনতায় চীন হস্তক্ষেপ করার সুযোগ পাবে এবং যেকোনো সরকারবিরোধী কর্মকাণ্ড দমনের হাতিয়ার হিসেবে এটাকে ব্যবহার করা হবে বলে সমালোচকরা আশঙ্কা প্রকাশ করেন।

এর পর থেকেই হংকংয়ে সরকারবিরোধী বিক্ষোভ আরো বেগবান হয়। একপর্যায়ে বিতর্কিত প্রত্যর্পণ বিলটি সাময়িকভাবে স্থগিত ঘোষণা করে হংকং প্রশাসন। কিন্তু তাতেও না দমে বিক্ষোভকারীদের দাবি করেন, বিলটি স্থায়ীভাবে বাতিল করতে হবে। আন্দোলনকারীরা আরো দাবি করেন, হংকংবাসীদের পূর্ণাঙ্গ গণতান্ত্রিক অধিকার নিশ্চিত করতে হবে এবং বিক্ষোভকারীদের ওপর পুলিশি নিপীড়নের নিরপেক্ষ তদন্ত করতে হবে।