সিরিজ বোমা হামলার ঘটনায় বিএনপি-জামায়াতের মদদ ছিল: সেতুমন্ত্রী

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বাংলাদেশে বিএনপিই নেতিবাচক রাজনীতি শুরু করে। তাদের প্রাইম টার্গেট এখন বঙ্গবন্ধুর কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা। যিনি দেশে-বিদেশে সমাদৃত, প্রশংসিত, জনপ্রিয় ও জননন্দিত নেতা হিসেবে সুপতিষ্ঠিত। শেখ হাসিনা প্রসংশা শুনলে বিএনপির গাত্রদাহ শুরু হয়ে যায়।‘১৭ আগস্ট সারাদেশে সিরিজ বোমা হামলার ঘটনায় বিএনপি-জামায়াতের প্রত্যক্ষ মদদ ছিল।’

আজ শনিবার বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউস্থ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সামনে ঢাকা মহানগর উত্তর-দক্ষিণ আওয়ামী লীগ আয়োজিত সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ বিরোধী সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

কাদের বলেন, বিএনপি রাজনীতির কাঁদায় আটকে আছে। তাদের এই রাজনীতির সাংস্কৃতি পাল্টাতে হবে। পাল্টাতে হলে হত্যা-খুন, সন্ত্রাসের রাজনীতি, জঙ্গিবাদের পৃষ্ঠপোষকতা ও লুটপাট-দুর্নীতির রাজনীতি থেকে বেড়িয়ে আসতে হবে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশে বিএনপিই নেতিবাচক-ধ্বংসাত্মক, হত্যা-খুন, সন্ত্রাসের রাজনীতি, জঙ্গিবাদের পৃষ্ঠপোষকতার রাজনীতি, লুটপাট ও দুর্নীতির রাজনীতি শুরু করে। ৫ বার বাংলাদেশকে দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন করে তারা দুর্নীতির কথা বলে।

সেতুমন্ত্রী বলেন, আজকের ফখরুল ইসলাম সাহেব যখন বলেন বেগম জিয়ার মুক্তির আন্দোলন করতে পারেনি এটা তাদের দুর্ভাগ্য। তারা তো দেউলিয়া হয়ে গেছে। দেউলিয়া হয়ে গেছে তাদের নেতৃত্ব। দুর্ভাগ্যের জন্য খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলন হয়নি এ ধরনের কথা, এ ধরনের বুলি, ফাঁকা কথা।

দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি হাজী আবুল হাসনাতের সভাপতিত্বে সমাবেশের আরো বক্তৃতা করেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাসিম, দপ্তর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ প্রমুখ।

মন্তব্য