হিলি স্থলবন্দরে পেঁয়াজ আমদানি বন্ধ


প্রতি বছরের মত এবারও পেঁয়াজের উৎপাদন কম দেখিয়ে বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দিয়েছে ভারত।

পেঁয়াজ আমদানি বন্ধ হওয়ার সাথে সাথে প্রভাব পড়েছে হিলি স্থলবন্দরের পাইকারি ও খোলা বাজারে। কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে পেঁয়াজের দাম বেড়েছে কেজিতে ৪০ থেকে ৪৫ টাকা। এতে বন্দরে বিপাকে পড়েছেন পেঁয়াজ কিনতে আসা পাইকাররা।

আমদানিকারকরা বলছেন, ভারতের পাইপলাইনে আটকে থাকা পেঁয়াজের ট্রাকগুলো বন্দরে প্রবেশ না করতে পারলে বড় ধরনের ক্ষতির আশঙ্কা করছেন তারা। পেঁয়াজের উৎপাদন কম দেখিয়ে গেলো (১৩ সেপ্টেম্বর) পেঁয়াজের রপ্তানি মূল্য ৮৫০ টাকা বৃদ্ধি করে দেয় ভারত সরকার। তারপর থেকেই ন্যায্য মূল্যের চেয়ে অধিক মূল্যে পেঁয়াজ আমদানি করতে হচ্ছে হিলির আমদানিকারকদের।

এদিকে শারদীয় দুর্গাপূজা বন্ধের আগেই বেশি পরিমাণ পেঁয়াজ আমদানি করতে ভারতে পর্যাপ্ত এলসি লাগিয়েছিলেন পেঁয়াজ আমদানিকারকরা। হঠাৎ করে ভারত সরকার রোববার দুপুর থেকে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেওয়ায় বড় ধরনের লোকসানের আশঙ্কা করছেন ব্যবসায়ীরা।

অন্যদিকে পেঁয়াজ আমদানি বন্ধের কয়েক ঘণ্টা পরই বন্দরের বিভিন্ন এলাকায় বেড়েছে পেঁয়াজের ঝাজ। প্রতি কেজি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৮০ থেকে ৯০ টাকা দরে। হঠাৎ করে পেঁয়াজের দাম বাড়ায় বিপাকে পড়ছে বন্দরে পাইকার ও সাধারণ ক্রেতারা।