১০ মিনিটে ক্যানসার শনাক্তকরণের পদ্ধতি উদ্ভাবন

বিশ্বজুড়ে বিজ্ঞানীরা ক্যানসার শনাক্তের পদ্ধতিকে আরও সহজ করতে চাইছেন। কারণ, যত দ্রুত রোগটি শনাক্ত করা যায়, তত বেশি এই রোগের চিকিৎসায় সফলতা পাওয়া সম্ভব। এই চেষ্টা থেকে ১০ মিনিটে ক্যানসার শনাক্তকরণের পদ্ধতি উদ্ভাবন করেছেন অস্ট্রেলিয়ার একদল গবেষক। এই পদ্ধতিতে শরীরের যেকোনো স্থানের ক্যানসার শনাক্ত করা যাবে। কুইন্সল্যান্ড ইউনিভার্সিটির গবেষকরা তাদের গবেষণায় দেখেন, পানিতে রাখলে ক্যানসার একেবারেই আলাদা এক ধরনের ডিএনএ গঠন করে। মূলত এখান থেকেই ওই টেস্ট উদ্ভাবন করা হয়।

‘নেচার কমিউনিকেশনস’ নামক জার্নালে এ সংক্রান্ত গবেষণা প্রবন্ধটি প্রকাশিত হয়। গবেষণা প্রবন্ধে বলা হয়, ডিএনএ-এর আলাদা গঠনের উপস্থিতি পর্যবেক্ষণের মাধ্যমে টেস্ট কার্যক্রম পরিচালিত হয় যা অল্প সময়ের মধ্যেই ফলাফল দিতে সক্ষম। এ সম্পর্কে গবেষক দলের সদস্য প্রফেসর ম্যাট ট্রাউ বলেন, স্বাভাবিক ডিএনএ-এর চেয়ে ক্যানসারে আক্রান্ত ডিএনএ সম্পূর্ণ আলাদা হয়। রক্ত কিংবা অন্য যেকোনো টিস্যু পরীক্ষার মাধ্যমে এটা শনাক্ত করা যায়।

তিনি আরও বলেন, এর সাহায্যে খুব অল্প খরচে ক্যানসার শনাক্ত করা যাবে। এই টেস্টের ডিভাইস হবে বহনযোগ্য। এ কারণে যেকোনো জায়গায় এটা ব্যবহার করা যাবে। এমনকি মোবাইল ফোনের সাহায্যেও এটা ব্যবহার করা যেতে পারে।