মানিকগঞ্জে এইচএসসি পরীক্ষার্থী ও তার মা গ্রেপ্তার


মানিকগঞ্জের সাটুরিয়ায় মারামারি মামলায় এক উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীসহ তার মাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। রবিবার মধ্যরাতে সাটুরিয়া উপজেলার সাইজাল বরুন্ডী এলাকার নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। সে ওই এলাকার মৃত আমজাদ আলীর ছেলে এবং সরকারি দেবেন্দ্র কলেজের উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী। পরীক্ষার্থী ও তার মাকে পরীক্ষার্থীর মামাতো বোন জামাইয়ের দায়ের করা মারামারি মামলায় গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আজ সোমবার সকাল ১০টা থেকে তার পৌরনীতি বিষয়ে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। সোমবার সকাল সোয়া ৮টা পর্যন্ত রাব্বি থানা হাজতে রয়েছে।

সাটুরিয়া থানা পুলিশের উপ পরিদির্শক (এসআই) আবুল কালাম আজাদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, মামলা ছিলো বলে রাব্বিকে তার মাসহ গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাদের গ্রেপ্তারের পর জানা গেছে সকালে রাব্বির পরীক্ষা রয়েছে। এ বিষয়ে এখন আইনগতভাবে তার কিছুই করার নেই।

এ বিষয়ে রাব্বির মামা ফজলু মিয়া জানান, রাব্বির মা ও রাব্বি তার মেয়ে সাথীকে বাড়িতে গিয়ে মারধর করেন। ওই ঘটনায় মেয়ের জামাই জসিম মোল্লা বাদী হয়ে মামলা করলে পুলিশ তাদের ধরে নিয়ে যায়। এছাড়া তাদের সঙ্গে জমি সংক্রান্ত বিরোধ ছিলো বলেও স্বীকার করেন তিনি।

মামলার বাদী জসিম মোল্লা জানান, ফেব্রুয়ারি মাসে তার স্ত্রী সাথী বাবার বাড়ি বেড়াতে যায়। বাড়িতে একা পেয়ে শত্রুতার জের ধরে সাথীকে মারধর করে রাব্বি ও তার মা। ওই ঘটনায় বাদী হয়ে তিনি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় রাব্বি গ্রেপ্তার হয়েছে।